193174

তৃতীয় লিঙ্গধারীদের ভোটার হতে বাধা নেই: ইসি

এখন থেকে তৃতীয় লিঙ্গধারী (হিজড়া) পরিচয়েও ভোটার তালিকায় নাম অন্তর্ভুক্ত করা যাবে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনের (ইসি) ভারপ্রাপ্ত সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ।

বৃহস্পতিবার (১৮ জানুয়ারি) আগারগাঁওয়ে নির্বাচন কমিশন ভবনে এক সভা শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান তিনি।

হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, ‘সরকার হিজড়া জনগোষ্ঠীককে স্বীকৃতি দিয়েছে। আমরা তাদের ভোটার করার জন্য কমিশনে প্রস্তাব উপস্থাপন করলে এ সিদ্ধান্ত হয়। এ জন্য যুগ্ম-সচিবকে (আইন) নিয়ে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটি এ সংক্রান্ত আইন ও বিধি সংশোধন করে কমিশন সভায় উপস্থাপন করবেন। পরে কমিশন নীতিমালা ও সফটওয়ারে যে পরিবর্তন করা প্রয়োজন তা করা হবে।’

ইসি সূত্র জানা যায়, সরকারের পক্ষ থেকে দেশের তৃতীয় লিঙ্গধারী বিশাল জনগোষ্ঠীকে স্বীকৃতি দেয়া হলেও ভোটার তালিকা আইন ও বিধিমালায় বিষয়টি না থাকায় এতদিন এটি করা যায়নি। তাই কমিশন ভোটার তালিকা আইন-২০০৯ ও ভোটার তালিকা বিধিমালা-২০১২ সংশোধন করার উদ্যোগ নিচ্ছে। ফলে এখন হিজড়াদেরও ভোটার হতে কোনও বাধা থাকবে না।

এর আগে ২০১৩ সালের ১৩ নভেম্বর মন্ত্রিপরিষদ সভায় হিজড়াদের স্বীকৃতি বিষয়ে নীতিগত অনুমোদন দেয়া হয়। এরপর ২০১৪ সালের ২৬ জানুয়ারি এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে সরকার। রাষ্ট্রপতির আদেশক্রমে সমাজকল্যাণ মন্ত্রলায়ের সহকারী সচিব মো. মুখলেছুর রহমান খান স্বাক্ষরিত ওই প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ‘সরকার বাংলাদেশের হিজড়া জনগোষ্ঠীকে তৃতীয় লিঙ্গ (hijra) হিসেবে চিহ্নিত করিয়া স্বীকৃতি প্রদান করিল।’

ইসি সূত্র জানায়, এর আগে কাজী রকিবউদ্দীন আহমদ এর নেতৃত্বাধীন কমিশন ২০১৪ সালে ভোটার তালিকা নিবন্ধনের খসড়া ফরমে হিজড়া লিঙ্গটি যোগ করেছিলেন। কিন্তু ভোটার তালিকা আইন ও বিধিমালা সংশোধন না হওয়ায় সেটি শেষ পর্যন্ত বাস্তবায়ন হয়নি। এখন পর্যন্ত হিজড়ারা কেউ ভোটার হতে চাইলে তাকে নারী বা পুরুষ লিঙ্গ বেছে নিতে হয়।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *