‘অসাধারণ বা রাজনৈতিক ব্যক্তিরা কথা শোনেন না’

kaderসড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন সড়কে শৃঙ্খলার ক্ষেত্রে সাধারণ মানুষ কথা শোনেন। কিন্তু অসাধারণ বা রাজনৈতিক ব্যক্তিরা কথা শোনেন না। তাঁরা আইন মানতে চান না। সোমবার ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটিতে এক ‘মিট দ্যা প্রেস’ অনুষ্ঠানে তিনি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন। হতাশা প্রকাশ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, অসাধারণ মানুষগুলো কথা শুনছেননা।

 

 

ঈদে সড়ক দুর্ঘটনায় পাখির মতো মানুষ মরেছে। বেপরোয়া ও অসংযতভাবে গাড়ি চালনার জন্যই এমনটা হয়েছে। তবে সড়ক পরিবহন ও সড়ক ব্যবস্থাপনা এবং পরিবহনে শৃঙ্খলা আনার ক্ষেত্রে আমার ব্যর্থতা রয়েছে। এই ব্যর্থতার দায় আমি নিচ্ছি। মন্ত্রী বলেন, গত বছরের তুলনায় চলতি বছরের প্রথম আট মাসে সড়ক দুর্ঘটনায় হতাহতের পরিমাণ অর্ধেকে নেমে এসেছিল।

 

 

এবারের ঈদে (ঈদুল আজহা) সেই সাফল্য ধরে রাখা যায়নি। কোন ভাবেই বেপরোয়া ও অসংযতভাবে গাড়ি চালানো বন্ধ করা যাচ্ছেনা। তিনি আরও জানান, সড়ক দুর্ঘটনা কমাতে ১৪২টি ব্যাক স্পট উন্নয়নের কাজ চলছে। আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে তা শেষ হবে। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের এই নেতা বলেন, আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলনের কোনো পদেই আমি প্রার্থী নই। আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পদে সৈয়দ আশরাফুল ইসলামের প্রতিদ্বন্দ্বী হিসেবে আমি প্রার্থীও না আমাদের পার্টিতে কোনো বিভেদও নেই।

 

 

 

কে কী পেল তা নিয়ে মান অভিমান থাকতে পারে, এখানে নেত্রীর উপর আস্থা রয়েছে শতভাগ। আমরা সবাই তার নেতৃত্বের প্রতি আস্থাশীল। আগামী ২২ ও ২৩ অক্টোবর আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন হওয়ার কথা, যার মধ্য দিয়ে পরবর্তী তিন বছরের জন্য নতুন নেতৃত্ব ঠিক করবে ক্ষমতাসীন দলটি। অন্যদের মধ্যে ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটির সভাপতি জামাল উদ্দিন এবং সাধারণ সম্পাদক রাজু আহমেদ এই ‘মিট দ্যা প্রেস’ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *