302741

পূজায় অংশ নেওয়ায় মুসলিম নায়িকাকে হত্যার হুমকি

বিনোদন প্রতিবেদকঃ কলকাতার সিনেমার জনপ্রিয় নায়িকা নুসরাত জাহান গত ১৯ জুন বিয়ে করেন। তুরস্কের বোদরুম শহরে ব্যবসায়ী নিখিল জৈনর সঙ্গে জাকজঁমক আয়োজনে বিয়ে হয় তার। এবার স্বামীর সঙ্গে বেশ জমিয়ে পূজা উৎসব কাটিয়েছেন তিনি। দুর্গাপূজায় মহাঅষ্টমীতে স্বামীর সঙ্গে পূজামণ্ডপে গিয়ে অঞ্জলি দিয়েছেন নুসরাত জাহান।

মহাঅষ্টমীতে শাড়ি ও সিঁদুর পরে নুসরাত তার স্বামীর সঙ্গে কলকাতার সুরুচি সংঘের পূজা মণ্ডপে গিয়ে পূজা দিয়েছেন। চোখ বন্ধ করে অঞ্জলির মন্ত্রপাঠ ও প্রার্থনা করতেও দেখা গেছে তাকে। এরপর তিনি স্বামীর সঙ্গে ঢাক বাজান ও নাচেন।

নুসরাতের পূজা মণ্ডপের ছবি সামাজিক মাধ্যমে প্রকাশ হওয়ার পরই তাকে নিয়ে নানা ধরণের সমালোচনা শুরু হয়। মুসলিম হয়ে পূজায় অংশ নেওয়ায় তার ঘিরে চলছে তর্ক-বিতর্ক। এমনকি হত্যার হুমকিও পেয়েছেন নুসরাত। ভারতের ন্যাশনাল কংগ্রেসের আসাম রাজ্যের আইটি সেলের এক কর্মী নুসরাতকে হত্যার হুমকিও দিয়েছেন।

অন্যদিকে তাকে মুসলিম ধর্ম ত্যাগ করারও পরামর্শ দিয়েছেন কেউ কেউ। ভারতের দারুল উলুম দেওবন্দের একজন পণ্ডিত মুফতি আসাদ কাশমী বলেন, তিনি হিন্দু দেবতাকে পূজা দিচ্ছেন, যদিও ইসলামের অনুসারীদের আল্লাহ ছাড়া আর কারও উপাসনা করা নিষেধ। তিনি যা করেছেন তা হারাম। নুসরাত তার ধর্মের বাইরে বিয়ে করেছেন। তার নাম ও ধর্ম পরিবর্তন করা উচিত।’

তবে এসব নিয়ে নুসরাত জানালেন, জন্মসূত্রে তিনি মুসলমান এবং তার স্বামী হিন্দু হওয়ায় উভয় ধর্মের প্রতিই তিনি শ্রদ্ধাশীল তিনি। তিনি মনে করেন ধর্মবিশ্বাস নিতান্তই তার ব্যক্তিগত ব্যাপার।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *