193188

বাড়িতে টাকার বিছানা, গুনতে গিয়ে রাত শেষ!

সারি সারি করে রাখা। উপরে একটি চাদর দিলে একেবারে বিছানা হয়ে যাবে। বিছানাটা যেন তেন নয়, টাকার বিছানা! ভারতের উত্তর প্রদেশের কানপুরে মিলেছে এমনই বিছানা, সেখানে টাকা নয় আছে ভারতীয় রুপি!

গতকাল মঙ্গলবার এসব রুপি উদ্ধার করে পুলিশ। এনডিটিভি জানিয়েছে, আজ বুধবার সকাল পর্যন্ত রুপিগুলো গণনা করে পাওয়া গেছে ৯৭ কোটি রুপি। তবে আরো বহু রুপি আছে গণনার বাকি।

রুপিগুলোতে কেবলই ৫০০ ও ১০০০ রুপির নোট। ২০১৬ সালে হঠাৎই এক ঘোষণায় ৫০০ ও ১০০০ রুপির নোট বাতিল করে দেয় নরেন্দ্র মোদির সরকার।

আনন্দ ক্ষেত্রি নামের এক ব্যবসায়ীর বাড়ি থেকে ওই এসব রুপি উদ্ধার করা হয়। তিনি মানি লন্ডারিংয়ের সঙ্গে জড়িত বলে জানায় পুলিশ। তবে ওই ব্যক্তি নির্মাণ ব্যবসার সঙ্গেও জড়িত।

ভারতের শুল্ক কর্মকর্তা, জাতীয় তদন্ত সংস্থা (এনআইএ) এবং পুলিশ একটি হোটেলে অভিযান চালিয়ে বেশ কয়েকজনকে আটক করে। আটক ব্যক্তিদের জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে বেরিয়ে আসে আনন্দ ক্ষেত্রির বাড়ির খবর।

উত্তর প্রদেশ পুলিশের প্রধান আনন্দ কুমার জানান, ১৬ জনকে আটক করা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, একাধিক ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান ওই রুপির লেনদেনের সঙ্গে জড়িত। এরমধ্যে ডিটারজেন্ট তৈরি করে এমন একটি ‘বিখ্যাত’ প্রতিষ্ঠানও আছে।

পুলিশ জানিয়েছে, এরসঙ্গে সরকারি কর্মকর্তারা জড়িত আছেন কি না, তাও দেখা হচ্ছে।

রিজার্ভ ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার কর্মকর্তারা এসব রুপি সংগ্রহ করে নিয়ে যাচ্ছেন। এখন পর্যন্ত তাঁদের লেগেছে পাঁচটি বড় ধরনের ট্রাঙ্ক!
সূত্র:এনডিটিভি

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *