353325

তরুণীদের অন্তরঙ্গ মুহূর্তের ভিডিও ধারণ করে ব্ল্যাকমেইল করতেন তিনি

নিউজ ডেস্ক।। রাজধানীর মোহাম্মদপুর এলাকার এক তরুণীর ব্যক্তিগত ছবি-ভিডিও সামাজিকমাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে তাকে ধর্ষণ করা হয়।

ধর্ষণের সেই ঘটনা ভিডিও ধারণ করে রাখায় এক কলেজছাত্রকে পর্নোগ্রাফির অভিযোগে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল শনিবার মধ্যরাতে তাকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-১)।

গ্রেপ্তার হওয়া কলেজ ছাত্রের নাম মো. আরমান খন্দকার রাহুল (২৬)। তার বাবার নাম খন্দকার হাবিবুল আলম। তারা গাজীপুর মহানগরের হাড়িনাল এলাকার বাসিন্দা। আরমান গাজীপুর সদরের ভাওয়াল মির্জাপুর কলেজের সম্মান চূড়ান্ত বর্ষের ছাত্র। র‌্যাব-১’র কোম্পানি কমান্ডার আব্দুল্লাহ আল মামুন এসব তথ্য নিশ্চিত করেন।

র‌্যাব জানায়, ঢাকার মোহাম্মদপুর এলাকার ওই তরুণীর সঙ্গে ফেসবুকে পরিচয় হয় আরমানের। সেই সূত্র ধরে গত ২০ জানুয়ারি দুপুরে গাজীপুরের হাড়িনাল এলাকায় এক বন্ধুর বাসায় ওই তরুণীকে নিয়ে অন্তরঙ্গ মুহুর্তের ভিডিও ধারণ করেন আরমান। পরে ভিডিওটি সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে ওই তরুণীকে ধর্ষণ ও এ ঘটনার গোপন ভিডিও করে রেখে ৫ লাখ টাকা দাবি করেন। ঘটনা জানার পর ভুক্তভোগীর মা বাদী হয়ে গাজীপুর সদর থানায় গতকাল শনিবার মামলা দায়ের করেন।

গ্রেপ্তারের পর র‌্যাবের জিজ্ঞাসাবাদে আরমান জানান, তিনি একাধিক মেয়েদের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক স্থাপন করে গোপন ক্যামেরার মাধ্যমে ধারণ করা অশ্লীল ভিডিও/ছবির মাধ্যমে ব্ল্যাকমেইল করে থাকেন। তিনি মাদকাসক্ত, নিয়মিত ইয়াবা ও গাজা সেবন করেন। এসবের ভিডিও তার ল্যাপটপে পাওয়া গেছে। র‌্যাবা তার ল্যাপটপ জব্দ করে বিভিন্ন তরুণীর গোপন ভিডিও পায়। এসব ব্যবহার করে তরুণীদের কাছ থেকে তিনি অর্থ আদায় করতেন, আবার ধর্ষণও করতেন। ল্যাপটপটি জব্দ করেছে র‌্যাব।

 

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *