349894

চীনা গণমাধ্যমেও পদ্মা সেতুর জয়জয়কার

শুধু সেতুর সব স্প্যান দৃশ্যমান করার সাফল্য নয়, পদ্মা সেতুর পিলারগুলো তৈরিতেও বিশ্বরেকর্ড গড়েছে বাংলাদেশ। এর আগে বিশ্বের আর কোনো সেতুতে ব্যবহার করা হয়নি ১২০ মিটার দৈর্ঘ্যের পাইল। প্রতিটি পিলারে এমন ছয়টি করে পাইল ব্যবহার করার ফলে অনেক শক্তিশালী হয়েছে সেতুর গঠন। নকশা জটিলতায় থাকা পিলারগুলোতে প্রথমবারের মতো ব্যবহার করা হয়েছে গ্রাউটিং প্রযুক্তি। পদ্মা সেতু নিয়ে শুধু দেশীয় গণমাধ্যমে নয় বরং বিদেশি গণমাধ্যমের আলোচনার বিষয় হয়ে উঠেছে।

পদ্মা সেতুর সর্বশেষ স্প্যান তথা ৪১তম স্প্যান বসানো হয় গত ১০ ডিসেম্বর। বাংলাদেশের এই সাফল্যের খবর দেশের পাশাপাশি চীনের গণমাধ্যমেও প্রচার করা হয়েছে। ১২ ডিসেম্বর ঢাকার চীনা দূতাবাস এ কথা জানায়। ঢাকার চীনা দূতাবাসের ফেসবুক পেজে চায়না সেন্ট্রাল টেলিভিশনের (সিসিটিভি) একটি প্রতিবেদন শেয়ার করা হয়েছে।

সিসিটিভির এই প্রতিবেদনে বাংলাদেশের পদ্মা সেতুর শেষ স্প্যান বসানোর চিত্র দেখানো হয়েছে। সেতুর দুই পাশে শেষ স্প্যানটি ক্রেন দিয়ে কীভাবে বসিয়ে দেওয়া হলো, সেটা তুলে ধরা হয় এতে।

চীনা দূতাবাস এক বার্তায় বলেছে, বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ পদ্মা সেতুর সর্বশেষ স্প্যানটি স্থাপন করা হয়েছে। এর মাধ্যমে চায়না রেলওয়ে মেজর ব্রিজ ইঞ্জিনিয়ারিং গ্রুপ কোম্পানি লিমিটেড কর্তৃক নির্মাণাধীন সেতুটির জলের ওপরের ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার মূল কাঠামোর নির্মাণকাজ সম্পন্ন হলো।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *