354382

দুদকের নতুন চেয়ারম্যান মঈনউদ্দীন আবদুল্লাহ

দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন কৃষি মন্ত্রণালয়ের সাবেক সিনিয়র সচিব মঈনউদ্দীন আবদুল্লাহ। আজ বুধবার তাকে এই নিয়োগ দিয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়েছে। ইকবাল মাহমুদের স্থলাভিষিক্ত হবেন তিনি।

রাষ্ট্রপতির আদেশে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়েছে, দুর্নীতি দমন কমিশন আইন, ২০০৪ এর ৫(১) ধারার বিধান অনুযায়ী এ নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। একই প্রজ্ঞাপনে দুদক কমিশনার হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়েছে বিটিআরসির সাবেক চেয়ারম্যান জহুরুল হককে।

১৯৮৩ সালে জনপ্রশাসনে যোগদান করে ২০১৮ সালের আগস্ট মাসে কৃষি মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব হিসেবে অবসর গ্রহণ করেন মঈনউদ্দীন আবদুল্লাহ। মোট ৩৫ বছর ধরে বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিসে কর্মরত ছিলেন তিনি।

কৃষি মন্ত্রণালয় ছাড়াও তিনি গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় এবং শিল্প মন্ত্রণালয়ের সচিবের দায়িত্ব পালন করেন। এ ছাড়া প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক এবং ঢাকা বিভাগের বিভাগীয় কমিশনার হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন। তিনি সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় এবং মাঠ প্রশাসনে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্বও পালন করেন।

মঈনউদ্দীন আবদুল্লাহ ১৯৫৯ সালে কুমিল্লায় জন্মগ্রহণ করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মৃত্তিকা বিজ্ঞান বিভাগ থেকে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নেন তিনি।

অন্যদিকে দুদক কমিশনার হিসেবে নিয়োগ পাওয়া জহুরুল হক ১৯৫৫ সালের ৫ ডিসেম্বর জামালপুর জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৭১ সালে মাদারগঞ্জ উপজেলার পলিশা উচ্চবিদ্যালয় থেকে মাধ্যমিক এবং ১৯৭৩ সালে জামালপুরের সরকারি আশেক মাহমুদ কলেজ থেকে উচ্চমাধ্যমিক পাস করেন। এরপর তিনি রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন বিভাগ থেকে ১৯৮০ সালে সম্মান ডিগ্রি এবং ১৯৮১ সালে মাস্টার্স ডিগ্রি অর্জন করেন।

জহুরুল হক ১৯৮৩ সালে সহকারী জজ হিসেবে চাকরি জীবন শুরু করেন। কর্মজীবনে তিনি সিরাজগঞ্জ, মৌলভীবাজার, নেত্রকোনা, নারায়ণগঞ্জসহ বিভিন্ন জেলার জেলা ও দায়রা জজ হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০১০ থেকে ২০১৪ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত ঢাকা মহানগর দায়রা জজ (সিনিয়র জেলা জজ) হিসেবে দায়িত্ব পালন শেষে অবসরে যান।

তিনি ২০১৫ সালের ৩০ আগস্ট বিটিআরসির কমিশনার হিসেবে যোগ দেন। ২০১৮ সালের ১২ মে কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান শাহজাহান মাহমুদের মেয়াদ শেষ হলে জহুরুল হক কমিশনের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পান। একই বছরের ১১ সেপ্টেম্বর থেকে তিনি একাধারে ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান ও কমিশনার (লিগ্যাল ও লাইসেন্সিং) হিসেবে তিনটি গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

সবশেষ তিনি ২০১৯ সালের ৩১ জানুয়ারি টেলিযোগাযোগ খাতের নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে নিয়োগ পান। গত বছরের ৪ ডিসেম্বর জহুরুল হক অবসরে যান।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *