350079

জুয়াড়িদের হাতে স্ত্রীকে তুলে দেন স্বামী, গণধর্ষণের পর এসিড নিক্ষেপ

পাঁচ বন্ধুর কাছে জুয়ায় হেরেছেন স্বামী। আর তারই খেসারত দিতে হলো স্ত্রীকে। জুয়ায় হারার পর বন্ধুদের হাতে স্ত্রীকে তুলে দেন এক ব্যক্তি। তারা ওই নারীকে দলবেঁধে ধর্ষণ করেন। এখানেই শেষ নয়; ধর্ষণের একপর্যায়ে স্ত্রীর মুখ ও গোপনাঙ্গে এসিড ঢেলে দেন তারই স্বামী।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ডেকান হেরাল্ডের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ‘গত নভেম্বরে ভারতের বিহার রাজ্যের ভাগলপুরের মোজাহিদপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গত ১১ ডিসেম্বর ওই নারী স্বামীর বাড়ি থেকে পালিয়ে বাবার বাড়িতে আসলে ঘটনাটি প্রকাশ পায়।’

বীভৎস ওই ঘটনার কথা জেলার সিনিয়র এসপি রাজেশ ঝা’র কাছে বর্ণনা করেছেন ওই নারী। এ ঘটনায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে এবং অভিযুক্ত জুয়াড়ি স্বামীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। মামলাটি তদন্ত করছেন রাজেশ ঝা এবং অফিসার ইনচার্জ রিতা কুমারী।

সিনিয়র এসপি রাজেশ ঝা বলেন, ‘প্রাথমিক তদন্তের পর জানা গেছে ঘটনাটি সত্য। এ ব্যাপারে খুব দ্রুত তদন্ত করা হচ্ছে। শিগগিরই একটি অভিযোগপত্র আদালতে দাখিল করা হবে।’

মামলার অভিযোগপত্রে বলা হয়, জুয়ায় হেরে অন্য জুয়াড়িদের হাতে তুলে দেন নির্যাতিতার স্বামী। জুয়াড়িরা তার স্ত্রীকে ধর্ষণ করেন। ধর্ষণের সময়ই ওই নারীর মুখ ও বিশেষ অঙ্গে এসিড ঢেলে দেন তার স্বামী।

নির্যাতিতা বলেন, ‘তারা আমার সম্ভ্রমহানি করে। প্রথমেই তারা আমার চোখ বেঁধে ফেলে। এ কারণে আমি তাদেরকে শনাক্ত করতে পারিনি।’

তিনি আরও বলেন, ‘১০ বছর আগে তার সঙ্গে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই অমানুষিক নির্যাতন সহ্য করতে হয়েছে।’

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *