349940

দুজন সারারাত একসঙ্গে কাটিয়ে সকালে অভিযোগ উঠেছে ধর্ষণের

পটুয়াখালি প্রতিনিধি: দীর্ঘদিন মুঠোফোনে কথাবার্তা বলার পর এক তরুণীকে কুয়াকাটায় নিয়ে যায় আল আমিন নামের এক যুবক। দুজন সারারাত একসঙ্গে কাটিয়ে সকালে অভিযোগ উঠেছে ধর্ষণের।
শনিবার রাতে পটুয়াখালির কুয়াকাটায় সোনার বাংলা আবাসিক হোটেলে এ ঘটনা ঘটে।

রোববার সকালে ওই নারী বাদী হয়ে মহিপুর থানায় দুইজনের নামে ধর্ষণ মামলা করেছেন। এ ঘটনায় পুলিশ ধর্ষণে সহযোগী শামিম নামের এক যুবককে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করেছে।

জানা গেছে, অভিযুক্ত আল আমিন মহিপুর থানার সদর ইউনিয়নের মহিপুর গ্রামের গিয়াস উদ্দিনের পুত্র। সহযোগী শামিম মহিপুর ইউনিয়নের কোমরপুর গ্রামের হোটেল মালিক দেলোয়ারের পুত্র।

মামলা এজাহারসূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘ সাত মাস ধরে বিয়ের প্রলোভনে ওই নারীকে ধর্ষণ করে আসছে আল আমিন। এরই ধারাবাহিকতায় গতকাল রাতে কুয়াকাটার সোনার বাংলা হোটেলের ১০৪ নস্বর কক্ষে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে সে। ধর্শণের পর বাহির থেকে দরজা আটকে পালিয়ে যায় আল আমিন। পরে ওই নারী পরিবারের সাথে যোগাযোগ করলে তারা এসে উদ্ধার করে।

এ প্রসঙ্গে মহিপুর থানার ওসি মনিরুজ্জামান জানান, অভিযুক্ত আল আমিনকে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *