346247

রাতে খারাপ কিছু হয়েছে, দরজা অবরুদ্ধ ছিল: ডোনাল্ড ট্রাম্প

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট হবার পথে অনেকদূর এগিয়ে রয়েছেন ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বাইডেন। তিনি ২৬৪ টি এবং রিপাবলিকান প্রার্থী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ২১৪ টি ইলেকটোরাল ভোট পেয়েছেন। চূড়ান্ত বিজয়ী প্রার্থীকে কমপক্ষে ২৭০ টি ইলেকটোরাল ভোট পেতে হবে।

ব্যাটলগ্রাউন্ডগুলোতে ক্রমাগত এগিয়ে যাওয়ার প্রেক্ষাপটে প্রায় সবাই এখন এক সুরে বলছেন, বাইডেন নিশ্চিতভাবে হতে যাচ্ছেন পরবর্তী মার্কিন প্রেসিডেন্ট। এমন পরিস্থিতিতে নিজের পিছিয়ে পড়ার কারণ হিসেবে ‘ভোট গণনায় জালিয়াতির’ অভিযোগ করেই চলেছেন ট্রাম্প এবং এসব নিয়ে একের পর এক পোস্ট করে চলেছেন ফেসবুক এবং টুইটারে। নীতিমালা লংঘনের অভিযোগে তার অনেক পোস্ট মুছেও দিয়েছে টুইটার। কিন্তু তাতেও ক্ষান্ত দেননি ট্রাম্প৷

আজ ফেসবুকে অনেকগুলো পোস্ট করেছেন তিনি। তার সর্বশেষ পোস্টটি ছিল এমন: নির্বাচনের দিন মঙ্গলবার রাত ৮ টার পর কয়েক হাজার অবৈধ ভোট গণনা করা হয়েছে যাতে সম্পূর্ণভাবে এবং সহজেই পেনসিলভেনিয়া সহ কিছু রাজ্যে ফলাফল পরিবর্তন করা হয়। এছাড়াও কয়েক হাজার ভোটকে অবৈধভাবে পর্যবেক্ষণ করার অনুমতি দেয়া হয়নি। এটি পেনসিলভেনিয়া সহ অসংখ্য রাজ্যে নির্বাচনের ফলাফল পরিবর্তন করতে পারে। সবাই ভেবেছিল, সেগুলোতে নির্বাচনের দিন রাতেই সহজেই জয় পাবো।

কিন্তু দেখা গেলো, দীর্ঘসময় কাউকে পর্যবেক্ষণের সুযোগ না দিয়ে ‘অনেক বড় ব্যবধানে এগিয়ে থাকাটাও’ অদৃশ্য হয়ে গেলো। ওই সময়ে অনেক খারাপ কিছু ঘটে গেছে, যেখানে আইনি স্বচ্ছতা জঘন্যভাবে অনুপস্থিত ছিল। ট্রাক দিয়ে দরজা অবরুদ্ধ ছিল এবং কার্ডবোর্ড দিয়ে জানালাগুলোও ঢাকা ছিল যাতে পর্যবেক্ষকরা ভোট গণনার কক্ষগুলো দেখতে না পান। ভেতরে খারাপ কিছু হয়েছিল। ভেতরে বড় ধরনের পরিবর্তন করা হয়েছিল।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *