300392

ছেলে হ’ত্যার বিচার চাইতে গিয়ে লা’শ হলেন বাবাও!

পূর্ব বিরোধের জেরে ছেলেকে কু’পিয়ে হ’ত্যা করে প্রতিপক্ষ। সেই ছেলে হ’ত্যার ন্যায় বিচার চাইতে গিয়ে এবার লা’শ হলেন বাবা। এমনই ঘটনা ঘটেছে শনিবার (৭ সেপ্টম্বর) রাত আটটার দিকে পটুয়াখালীর বাউফল উপজেলায়।

নিহতের নাম কবির বয়তি (৪৫)। তিনি উপজেলার কনকদিয়া ইউনিয়নের কুম্বখালী গ্রামের বাসিন্দা। পুলিশ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে কুদ্দুস হাওলাদার নামের একজনকে গ্রেপ্তার করেছেন।

নিহতের স্ত্রী আকলিমা বেগম জানান, স্থানীয় পূর্ব বিরোধের জেরে গত ২০ জুলাই শনিবার দিবাগত রাত দুইটার দিকে কতিপয় দু’র্বৃত্ত ঘরে ঢুকে ঘুমিয়ে থাকা ছেলে সজীবকে কু’পিয়ে হ’ত্যা করে। এ ঘটনায় ২৬ জুলাই তার স্বামী কবির বয়াতি বাদি হয়ে কুদ্দুস হাওলাদারসহ কয়েকজনকে আসামী করে বাউফল থানায় একটি মামলা করেন। এরপর থেকে মামলা প্রত্যাহারে জন্য আসামীরা তার স্বামীকে বিভিন্ন ধরণের ভয়ভীতি দেখিয়ে আসছিল।

আকলিমা আরও জানান, ঘটনার দিন শনিবার রাত ৮টার দিকে কবির বয়াতি প্রতিপক্ষ কুদ্দুস হাওলাদারের বাড়ির সামনে দিয়ে যাওয়ার সময় কথাকাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে সরোয়ার, খালেক মোল্লা, মজিবুর মোল্লা, কামাল মোল্লা, রানা হাওলাদার, সজল হাওলাদার, আবু হাওলাদার ও নুরুল চৌকিদার তার স্বামী কবীর বয়াতিকে ধরে নিয়ে যায়। এক পর্যায়ে কবীরকে কু’পিয়ে বাড়ির উঠানে ফেলে রাখে।

ঘটনাটি কনকদিয়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শাহিন হাওলাদারের জানতে পেরে বাউফল থানার ওসিকে অবহিত করেন। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আহত কবির বয়াতিকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থকমপ্লেক্সে নিয়ে আসলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত বলে ঘোষনা করেন।

বাউফল থানার ওসি খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান জানান, ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে কুদ্দুস হাওলাদার নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। লা’শ ময়না তদন্তের জন্য পটুয়াখালী ম’র্গে পাঠানো হয়েছে।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *