298379

প্রতারণা করে ধরা পড়লেন বাংলাদেশের সাবেক কোচ রাউসিস

বাংলাদেশের দাবা অঙ্গনে খুবই পরিচিত মুখ ইগর রাউসিস। লাটভিয়ার এই সুপার গ্র্যান্ডমাস্টার ষষ্ঠবারের মতো বাংলাদেশের কোচের দায়িত্ব পেতে যাচ্ছিলেন। আগামী আগস্টে তার আসার কথা ছিল। কিন্তু সেটা আর হচ্ছে না। কারণ জালিয়াতি করে ধরা পড়েছেন বর্তমানে চেক প্রজাতন্ত্রের হয়ে খেলা ৫৮ বছর বয়সী এই দাবাড়ু। ফ্রান্সের স্ট্রাসবুর্গ ওপেন চলার সময় টয়লেটে বসে লুকিয়ে দাবার চাল দেখছিলেন রাউসিস।

গত কয়েক বছর ধরে ফিদে রেটিং গ্রাফে অবিশ্বাস্য রকমের উন্নতি ছিল। রাউসিসের পারফরম্যান্স দেখে গত বছর টুইটারে তার নাম সরাসরি উল্লেখ না করে প্রতারণার অভিযোগ আনেন ব্রিটিশ গ্র্যান্ডমাস্টার ড্যানি গরমালি ও আন্তর্জাতিক মাস্টার লরেন্স ট্রেন্ট। তাকে নিয়ে সন্দেহ ছিল বিশ্ব দাবার সর্বোচ্চ সংস্থা ফিদেরও।শেষ পর্যন্ত সুযোগের অপেক্ষায় ছিল তারা এবং হাতেনাতে ধরা পড়লেন রাউসিস। তবে টয়লেটে তার এই ছবিটি কিভাবে তোলা হয়েছে সেটা অস্পষ্ট।

রাউসিস গত বছর বিশ্বের শীর্ষ ১০০ জন দাবাড়–র তালিকায় জায়গা করে নেয়। পঞ্চাশ পেরিয়েও তার এই পারফরম্যান্স বাড়িয়ে দেয় সন্দেহ। রাশিয়ান গ্র্যান্ড মাস্টার ও দাবা বিশেষজ্ঞ আন্দ্রে দেভিয়াৎকিন বলেছেন, ‘আমি সবসময় দেখেছি ৩০ এর পর দাবায় সাধারণত এত বিশাল উন্নতি খুবই কম। কিন্তু জিএম ইগর রাউসিস, যার বয়স ৫৭!, এখন তিনি শীর্ষ ১০০ তে, যার রেটিং ২৬৫৭।’ বয়সের বাধা ভেঙে ফেলা রাউসিসের ঈর্ষণীয় পারফরম্যান্সের কারণ জানতেই ফিদে তাকে রাখে সন্দেহের আওতায়। শেষ পর্যন্ত হাতেনাতে ধরা খেলেন তিনি। ফিদে জানায়, পুলিশ রাউসিসের বিষয়টি তদন্ত করছে। তবে শাস্তি হিসেবে তাৎক্ষণিকভাবে টুর্নামেন্ট থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *