297740

২০ বলে ফিফটি জয়ের নায়ক ব্যাটিংয়ে মোসাদ্দেক

সমীকরণটা তখন একটু একটু করে এগিয়ে যাচ্ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজের পক্ষে, ২১০ রানের বিশাল লক্ষ্য তাড়ায় ২৪ বলে দরকার ছিলো ৩৮ রান। কেমার রোচের করা ২১তম ওভারের দ্বিতীয় বলে এক্সট্রা কভারের ওপর দিয়ে অসাধারণ এক ছক্কা হাঁকালেন মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত।

ধারাভাষ্য কক্ষ থেকে নির্দ্বিধায় বলে দেয়া হলো, এটিই ম্যাচের সেরা শট। তবে শুধু ম্যাচের সেরা শট খেলেই থামেননি মোসাদ্দেক, খেলেছেন ম্যাচের সেরা ইনিংস, বাংলাদেশের ওয়ানডে ইতিহাসের অন্যতম সেরা ইনিংস। তার ২০ বলে ফিফটিতে ভর করেই ৭ বল হাতে রেখে ২১০ রানের বিশাল লক্ষ্য টপকে গেছে টাইগাররা।

অথচ নিজের প্রথম ৯ বলে মাত্র ৭ রান করেছিলেন মোসাদ্দেক। সেখান থেকে পরের ১১ বলে করেন আরও ৪৩ রান। সবচেয়ে বেশি ঝড়টা বইয়ে দেন বাঁহাতি স্পিনার ফাবিয়ান অ্যালেনের ওপর। তার করা ২২তম ওভারের প্রথম পাঁচ বলে মোসাদ্দেকের ব্যাট থেকে যথাক্রমে ৬, ৬, ৪, ৬ ও ২ রান।

সে ওভারের শেষ বলে ১ রান নিয়ে ৬ বলে ২৫সহ নিজের ফিফটি পূরণ করেন মাত্র ২০ বলে। যা কিনা বাংলাদেশের ওয়ানডে ইতিহাসের দ্রুততম হাফসেঞ্চুরির রেকর্ড। হাফসেঞ্চুরির পর খানিক দেখে খেলেছেন তিনি। তাই তো পরের ৪ বলে এসেছে ২ রান।

সবমিলিয়ে ২ চার ও ৫ ছয়ের মারে মাত্র ২৪ বলে ৫২ রান করে বাংলাদেশের প্রথম শিরোপা জয়ের নায়ক নিঃসন্দেহে মোসাদ্দেক হোসেন সৈকত। তবে তাকে যথাযথ সাপোর্ট দিয়েছেন সৌম্য সরকার (৪১ বলে ৬৬) এবং মুশফিকুর রহীম (২২ বলে ৩৩)।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *