178941

পর্যাপ্ত ঘুমের অভাবে যেসব রোগ বাসা বাঁধে

ঘুম আমাদের শরীরের অপরিহার্য আহার। পর্যাপ্ত ঘুম না হলে মাথা ঝিমঝিম করা, বমি বমি ভাব, দুর্বলতা ইত্যাদি সমস্যাগুলো হয়ে থাকে। তবে এই সমস্যাগুলো বাদেও ঘুমের কারণে আরো বেশ কিছু রোগ বাসা বাঁধতে পারে আপনার শরীরে। জেনে নিন পর্যাপ্ত ঘুমের অভাবে যেসব অসুখ হয়।

 

স্ট্রোক:
ঘুম কম হলে ব্রেস্ট ক্যান্সারের আশঙ্কা বেড়ে যায়। একটি গবেষণায় দেখা গেছে কোলন ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীর সমস্যা এই ঘুমজনিত কারণেই সবচেয়ে বেশি হয়েছে। পর্যাপ্ত ঘুম না হলে তা শরীরের রক্ত চলাচল বাঁধা সৃষ্টি করে। যাতে স্ট্রোক থেকে শুরু করে ক্যান্সারেরও রূপ নেয়। তাই সারাদিনের কাজের পরে অন্তত চারদিক অন্ধকার করে ঘড়ি ধরে ছয় থেকে আট ঘণ্টা ঘুমানো উচিৎ। এটি আপনাকে যেমন সারাদিন কর্মক্ষম রাখবে তেমনি আপনাকে স্ট্রোকের হাত থেকে রক্ষা করবে।

ক্যান্সারের ঝুঁকি:
ক্যান্সারের নাম শুনলেই সবাই ভয়ে কেঁপে ওঠে। কিন্তু মনের অজান্তেই আমরা এই ক্যান্সারের দিকে নিজেকে ঠেলে দিচ্ছি। আমাদের মাঝে অনেকেরই রাত জাগার অভ্যেস আছে। সারা রাত জেগে পরের দিন আবার সেই নানা কাজে নিজেকে ব্যস্ত করে তোলা। প্রতিদিনের আপনার এই অভ্যাস আপনাকে নিয়ে যেতে পারে ক্যান্সারের দিকে। আপনি অল্প অল্প করে মৃত্যু পথযাত্রী হয়ে উঠতে পারেন এই অপর্যাপ্ত ঘুমের জন্য।

হাড়ের সমস্যা:
বয়স্কদের অনেকেই হাড়ের সমস্যায় ভুগে থাকেন। এর পাশাপাশি যারা তরুণ, কিশোর তাদেরও এই হাড়ের সমস্যা আছে। এই সমস্যা মূলত হয়ে থাকে কম ঘুমের কারণে। ঘুম কম হলে হাড় দুর্বল হয়ে পড়ে। ফলে হাড়ের ক্ষয় থেকে শুরু করে অল্পতেই হাড়ে ব্যথাজনিত নানা সমস্যার সৃষ্টি হয়। ঘুম কম হলে হাড়ে পর্যাপ্ত ক্যলসিয়াম পায় না। ফলে এই সমস্যা দেখা দেয়।

স্মৃতিশক্তি লোপ:
যারা কম ঘুমায় তাদের মস্তিষ্ক ঠিকভাবে কাজ করে না। কোন কাজটি আগে করতে হবে তা তারা বুঝতে পারেনা। এর সাথে দেখা যায় অমনোযোগিতা। ধিরে ধিরে এটি স্মৃতিশক্তি লোপের দিকে যেতে থাকে।

ওজন বৃদ্ধি:
ঘুম কমের সঙ্গে ওজন বৃদ্ধি পারস্পারিক ভাবে জড়িত। অনেকেই ভেবে থাকেন শুধু খাবারের কারণেই ওজন বৃদ্ধি পায়। দিনে রাতে মিলিয়ে ছয় থেকে আট ঘণ্টা না ঘুমালে তা ওজন বৃদ্ধি করতে শুরু করে।

ডায়াবেটিস:
ঘুমের কারণেও হতে পারে ডায়েবেটিসজনিত সমস্যা। অপর্যাপ্ত ঘুমের কারণে সৃষ্ট ক্লান্তি দূর করতে বর্তমানের তরুণ তরুণীরা ঝুঁকছেন কার্বোনেটেড পানীয়ের দিকে। যা রক্তে শর্করার পরিমাণ বাড়িয়ে দিয়ে ডায়াবেটিসের ঝুঁকি সৃষ্টি করছে।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *