178917

‘একে একে সব কয়টা বোতাম খুলে উঠে এলেন আমার ওপর’

অভিনেত্রী আনাবেলা সিওরাঅভিনেত্রী আনাবেলা সিওরাএবার হলিউডের প্রযোজক হারভে উইন্সটেনের বিরুদ্ধে ভয়ঙ্কর অভিযোগ করলেন অভিনেত্রী আনাবেলা সিওরা। তিনি জানান, প্রযোজক হারভে উইন্সটেন একে একে সব কয়টা বোতাম খুলে ফেললেন। তারপর উঠে এলন আমার ওপর। জোর করে আমাকে ধর্ষণ করলেন। বাধা দিয়েছিলাম। কিন্তু তাকে থামাতে পারি নি।
‘দ্য সোপ্রানোস’ নামের টেলিভিশন সিরিজে অভিনয়ের জন্য তিনি এমি এওয়ার্ডের জন্য মনোনীত হয়েছিলেন। এ নিয়ে হারভে উইন্সটেনের ভিতরকার আরো পাশবিক চরিত্রের প্রকাশ পেয়েছে। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

এতে বলা হয়, এরই মধ্যে ৪০ জনেরও বেশি অভিনেত্রী, বিভিন্ন পেশার নারীর যৌন নির্যাতনের অভিযোগে বর্তমান সময়ে সবচেয়ে কুখ্যাত ব্যক্তিতে পরিণত হয়েছেন হলিউডের চলচ্চিত্র জগতের মুঘল হিসেবে পরিচিত হারভে উইন্সটেন। কিভাবে তিনি অভিনেত্রী আনাবেলাকে ধর্ষণ করেছিলেন তার বিস্তারিত বর্ণনা দিয়েছেন দ্য নিউ ইয়র্কার ম্যাগাজিনকে।

তিনি বলেছেন, ১৯৯০ এর দশকের শুরুতে হারভে উইন্সটেন জোরপূর্বক তার এপার্টমেন্টে প্রবেশ করেন এবং তাকে নৃশংস উপায়ে ধর্ষণ করেন। ধর্ষণ করার পূর্ব মুহূর্তে তিনি তার এপার্টমেন্টে এমনভাবে যান, যেন তিনি ওই বাসার মালিক। বাসার ভিতর প্রবেশ করেই নিজের শার্টের বোতাম খোলা শুরু করেন। অভিনেত্রী আনাবেলা বলেন, এটা পরিষ্কার বোঝা যাচ্ছিল তিনি কি করতে যাচ্ছেন। আমি তাকে অনুরোধ করলাম আমাকে ছেড়ে দিতে। কিন্তু তিনি আমাকে ধাক্কাতে ধাক্কাতে নিয়ে গেলেন বিছানায়। ফেলে দিলেন বিছানার ওপর। তারপর জোর করে উঠে গেছেন আমার শরীরের ওপর। আমি তাকে বাধা দিয়েছি। কিন্তু তাকে থামাতে পারি নি। তিনি শক্তি প্রয়োগ করে আমার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক গড়লেন। ওরাল সেক্স পারফর্ম করার চেষ্টা করলেন। আমি তার কবল থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য লড়াই করলাম। কিন্তু তাকে সরিয়ে দেয়ার মতো অতো শক্তি আমার ছিল না।

আনাবেলার বয়স এখন ৫৭ বছর। তিনি বলেন, এতে আমি মারাত্মকভাবে লজ্জিত হয়ে পড়ি। গভীর হতাশা ভর করে আমার মধ্যে। বেশ কয়েক বছর কাজ করা বন্ধ করে দিয়েছিলাম। পেশাদারিত্বের ক্ষেত্রে ক্ষতি হতে পারে এই আতঙ্কে এই জঘন্য অধ্যায়কে গোপন করে রেখেছিলাম। তারপর আবার আমি অভিনয় শুরু করি। ফলে বছরের পর বছর অব্যাহতভাবে আমাকে যৌন হয়রান করে যেতে থাকেন হারভে উইন্সটেন।

আনাবেলার এই অভিযোগ নিয়ে উইন্সটেনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও যৌন হয়রানির অভিযোগকারী নারীর সংখ্যা অর্ধ শতক ছাড়িয়ে গেছে। এর মধ্যে রয়েছেন সুপরিচিত নায়িকা গাইনেথ পালট্রো, অ্যানজেলিনা জোলি, মিরা সোরভিনো, ডেরিল হান্নাহ, অ্যাশলে জুড প্রমুখ।

উইন্সটেন প্রযোজিত ছবি ‘কিল বিল: ভলিউম-১’-এ অভিনয় করেছিলেন অভিনেত্রী ডেরিল হান্নাহ। তিনি অভিযোগ করেছেন, হলিউডের ক্ষমতাধর এই নির্বাহী ব্যক্তিত্ব আমার দিকে যৌন সুবিধা নেয়ার হাত বাড়িয়েছিলেন। কিন্তু তার এই লোলুপ দৃষ্টি থেকে আমি পাশ কাটিয়ে নিজেকে রক্ষা করতে পেরেছি। একবার তিনি আমার হোটেল কক্ষে উন্মত্ত ষাঁড়ের মতো আচরণ করছিলেন। তখন আমার সঙ্গে ছিলেন একজন পুরুষ মেকআপ আর্টিস্ট। এক পর্যায়ে হারভে আমার শরীরের স্পর্শকাতর একটি অঙ্গ স্পর্শ করতে চান। সঙ্গে সঙ্গে আমার মধ্যে বিদ্যুতস্ফুলিঙ্গ শুরু হয়। চলচ্চিত্র জগত ছেড়ে দেয়ার ইচ্ছে হয়। তাই আমি সর্বশক্তি দিয়ে তাকে প্রতিহত করি। ফলে কোনো অঘটন ঘটেনি।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *