173524

৭ বছরেও কথা বলতে না পারায় মেয়েকে ছাদ থেকে আছড়ে ফেলে হত্যা করল মা!

মেয়ের বয়স ৭ বছর হয়ে যাওয়ার পরও কথা বলতে না পারায় ‘মেজাজ হারিয়ে’ তাকে চারতলা ছাদ থেকে নিচে ছুঁড়ে ফেললেন মা। প্রথমবার ছুঁড়ে ফেলেই ক্ষান্ত হননি এ মা, তুলে এনে দ্বিতীয়বারও একই কাজ করেছেন তিনি। ফলাফল ঘটনাস্থলেই মেয়ের মৃত্যু।

অবিশ্বাস্য এ ঘটনাটি ঘটেছে ২৬ আগস্ট শনিবার ভারতে ব্যাঙ্গালুরুতে। ঘটনার পরপর নিহত শিশুর মাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। আর ঐশিকা নামের ওই শিশুটির লাশ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, কথা বলায় সমস্যা ছিল ঐশিকার। বয়স সাত হয়ে গেলেও ঠিকভাবে কথা বলতে পারত না সে। এটি নিয়ে সেদিন মেজাজ হারিয়ে ফেলেন শিশুটির মা স্বাতী সরকার। শিশুটিকে চারতলা বাড়ির ছাদে নিয়ে প্রথমবার নিচে ছুঁড়ে ফেলেন। পরপর দ্বিতীয়বারও একই কাজ করেন। ঘটনা ঘটনারো পর নিজের বাসায় ঢুকে জামাকাপড় ও অর্থ নিয়ে পালানোর সময় প্রতিবেশিরা তাকে ধরে বেঁধে রাখেন। পরে তাকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

পুলিশ আরও জানিয়েছে, বনিবনা না হওয়ায় স্বামী কাঞ্চনের সঙ্গে প্রায় বছর দু’য়েক আগে থেকে আলাদা থাকছিলেন স্বাতী। কাঞ্চন ইন্দিরানগরের কাছে একটি ফ্ল্যাটে একা থাকতেন। মাসে একবার করে এসে স্ত্রীকে টাকা এবং প্রয়োজনীয় জিনিস কিনে দিয়ে যেতেন বলে জানিয়েছেন স্বাতির প্রতিবেশীরা।

এ ঘটনার পুলিশ খুনের মামলা দায়ের করেছে। একই সাথে স্বাতীর মানসিক ভারসাম্য ঠিক আছে কিনা, তাও পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে। পুলিশ খুনের মামলা রুজু করেছে। ডাক্তারি পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে, স্বাতীর মানসিক ভারসাম্য ঠিক রয়েছে কিনা।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *