173493

‘অভাবে স্বামী-স্ত্রী দুজন মাঝেমধ্যে উপোসও করতাম’

১৯৮২ সালে বিশিষ্ট চলচ্চিত্র গবেষক অনুপম হায়াতকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাজ্জাক বলেছিলেন, ‘আমার জীবনটাই একটা উপন্যাস…।’ সাক্ষাৎকারে রাজ্জাক জানিয়েছিলেন, একটা সময় ফার্মগেট এলাকায় থিতু হয়েছিলেন দুই বাচ্চা আর স্ত্রী লক্ষ্মীকে নিয়ে।

তখন জীবিকা নির্বাহের জন্য টিভিনাটকে অভিনয় করতেন। নাটকে অভিনয় করে সপ্তায় পেতেন ৬০-৬৫ টাকা। মাসের খরচ ৬০০ টাকা। রাজ্জাক বলেছিলেন, ‘অল্প আয়ে সংসারের খরচ চলে না। বাচ্চাদের দুধ জোগাড় করতেই সব টাকা ব্যয় হয়ে যেত। ওই সময় স্বামী-স্ত্রী দুজন মাঝেমধ্যে উপোসও করতাম। পয়সার অভাবে ফার্মগেট থেকে ডিআইটি টিভি কেন্দ্রে হেঁটে যাতায়াত করতাম।’

অনুপম হায়াত বলেন, ‘রাজ্জাক জন্মেছিলেন সোনার চামচ মুখে নিয়ে। কিন্তু ভাগ্য তাঁকে ফেলে দেয় চরম আর্থিক সংকটে। একদিকে স্ত্রী-সন্তান নিয়ে সংসারের খরচ জোগানো, আরেক দিকে প্রতিষ্ঠার সংগ্রাম ঢাকায় রাজ্জাকের প্রাথমিক জীবনটাকে বড় দুঃখের আর কষ্টের করে তোলে। সে দিনগুলোর কথা বলতে গিয়ে রাজ্জাককে আপ্লুত হতে দেখেছি। কিন্তু তিনি কখনো ভোলেননি তাঁর এ সময় কষ্টের দিনগুলোর কথা। বরং অকপটে বলেছেন নানা সময়ে।’
খবর : প্রথম আলো

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *