173368

প্রথম দিনটাও শেষ করতে পারল না বাংলাদেশ

বৈরী আবহাওয়ায় টস জিতে প্রথমে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন মুশফিকুর রহীম। বাংলাদেশ অধিনায়কের এ সিদ্ধান্তকে যথার্থ প্রমাণ করতে ব্যর্থ দলের টপ-অর্ডার ব্যাটসম্যানরা! ১০ রানের মধ্যে নেই তিন উইকেট। এ ধকল সামলে ওঠাই ছিল টাইগারদের বড় চ্যালেঞ্জ।

ব্যক্তিগত ৫০তম টেস্ট খেলতে নামা তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসান বিপদে হাল ধরেন। অভিজ্ঞ এই দুই ক্রিকেটারই টানেন দলকে। দুজনই তুলে নেন ফিফটি। তবে সেঞ্চুরিও পেতে পারতেন। দুর্ভাগ্য তাদের। খুব কাছে গিয়েই তা আদায় করে নিতে পারেননি। রইল অধরাই। তবে মাইলফলকের ম্যাচে যা করলেন, তা-ও বা কম কিসে?

তামিম-সাকিব ছাড়া বাকি ব্যাটসম্যানরা কী জবাব দেবেন? এলোপাতাড়ি শট খেলে আত্মহুতি দিয়েছেন অনেকে। টেস্ট মেজাজে যে শটগুলো অনেকটাই প্রশ্নবিদ্ধ। সিরিজ শুরু হওয়ার আগে বাংলাদেশ দলের পক্ষ থেকে যা বলা হয়েছিল, তা প্রমাণ করতে পেরেছে কি মুশফিক বাহিনী?

প্রথম দিনের খেলাটাও তো শেষ করতে পারল না বাংলাদেশ। ৭৮.৫ ওভার খেলে ২৬০ রান করতেই দম ফুরিয়ে গেছে বাংলাদেশের ইনিংসের। তামিম ইকবাল ও সাকিব আল হাসানের ব্যাট না জ্বলতে সঙ্গী হতে পারত বড়সড় লজ্জাও!

শেরেবাংলায় টস জিতে ব্যাট করতে নেমে হ্যাজেলউডকে চমৎকার বাউন্ডারি মেরে শুরু করা সৌম্য পরের ওভারেই কামিন্সের পেসে কিছুটা অস্বস্তিতে ছিলেন। ওভারের চতুর্থ বলে ব্যাটের কানায় লেগে স্লিপের উপর দিয়ে ভাগ্যগুণে বাউন্ডারি পান সৌম্য। তবে পরের বলে ভাগ্য আর সহায় হয়নি। প্যাট কামিন্সের অফ স্টাম্পের বাইরের বল তাড়া করতে গিয়ে ব্যক্তিগত ৮ রানে স্লিপে পিটার হ্যান্ডসকম্বের হাতে ধরা পড়েন বাঁ-হাতি উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান।

নিজের পরের ওভারেই পরপর দুই বলে ইমরুল কায়েস ও সাব্বির রহমানকে সাজঘরে ফেরান কামিন্স। জায়গায় দাঁড়িয়ে ড্রাইভ করতে গিয়ে ঠিকমতো টাইমিং করতে পারেননি ইমরুল। ব্যাটের নিচের কানায় লেগে আসা ক্যাচ গ্লাভসে জমান ম্যাথু ওয়েড। পরের বলে উইকেটররক্ষক ওয়েডকে সহজ ক্যাচ দেন সাব্বির। দুজনের কেউই রানের খাতা খুলতে পারেননি।

শুরুতেই তিন উইকেট হারিয়ে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে বাংলাদেশ। সেখান থেকে দলের হাল ধরলেন ৫০তম টেস্ট ম্যাচ খেলতে নামা তামিম-সাকিব। অভিজ্ঞ দুই ব্যাটসম্যান গড়েন ১৫৫ রানের জুটি। এরপর ম্যাক্সওয়েলের বলে কাট করতে গিয়ে ডেভিড ওয়ার্নারের হাতে ক্যাচ দেন তামিম। বিদায়ের আগে খেলেছেন ৭১ রানের ইনিংস। তার ১৪৪ বলের ধৈর্যশীল ইনিংসটি সাজানো পাঁচটি চার ও তিনটি ছক্কায়।

তামিমের বিদায়ের পর খুব বেশি সময় উইকেটে থাকতে পারেননি আরেক ব্যাটসম্যান সাকিবও। চা বিরতির আগে নাথান লিওনের বাড়তি বাউন্সে খোঁচা মেরে স্মিথের তালুবন্দি হন সাকিব। চা বিরতির পরই বিদায় নেন টাইগার অধিনায়ক মুশফিকুর রহীম। করতে পেরেছেন মোটে ১৮ রান।

স্বীকৃত ব্যাটসম্যানদের মধ্যে মেহেদী হাসান মিরাজই ছিলেন শেষ ভরসা। মুশফিকুর রহীমের বিদায়ের পর নাসির হোসেনের সঙ্গে দারুণ এক জুটি গড়েন মিরাজ। সপ্তম উইকেটে নাসির-মিরাজ মিলে দলের স্কোরশিটে জমা করেন ৪২ রান।

জমে ওঠা এই জুটি ভাঙেন নাথান লিওন। দুর্দান্ত এক ডেলিভারিতে মিরাজকে পিটার হ্যান্ডসকম্বের তালুবন্দি করান এই অসি স্পিনার। দলের বিপদ বাড়িয়ে মাত্র ১৮ রান করেই সাজঘরে ফেরেন মিরাজ। মিরাজের পর বিদায় নিয়েছেন নাসির হোসেনও।

দুই বছর পর টেস্ট দলে ফেরা এই অলরাউন্ডার করেছেন ২৩ রান। তার ৬১ বলের ইনিংসটি সাজানা ৩টি চারে। অ্যাস্টন আগারের বলে এলবিডব্লিউর আবেদনে প্রথমত সাড়া দেননি আম্পায়ার নাইজেল লং। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া রিভিউ নিলে আউট হন নাসির। শফিউল ইসলামের ব্যাট থেকে আসে ১৩ রান।

অস্ট্রেলিয়ার পক্ষে তিনটি করে উইকেট নিয়েছেন তিন বোলার। প্যাট কামিন্স, নাথান লিওন ও অ্যাস্টন আগার। বাকি উইকেটটি গেছে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলের দখলে।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *