173218

নায়করাজের আদর্শ নিয়ে এগিয়ে যাব : শাকিব খান

জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার ২০১৫ বিতরণ অনুষ্ঠান। ‘আরো ভালোবাসবো তোমায়’ছবির জন্য শ্রেষ্ঠ অভিনেতার পুরস্কারপান সুপারস্টার শাকিব খান। পুরস্কারটি হাতে নিয়ে বের হতেই দেখলেন নায়করাজ চেয়ারে বসা। নায়করাজকে দেখামাত্র মাথা নিচু করে তার পা ছুঁয়ে সালাম করলেন শাকিব।

নায়করাজ মাথায় হাত বুলিয়ে দিয়ে হাসিমুখে বললেন, কেমন আছো? তোমার উপর দিয়ে এখন অনেক ঝড় বয়ে যাচ্ছে। এটা নিয়ে চিন্তা করবা না। এরকম ঝড় আমিও মোকাবিলা করেছি। কাজ করো, এগিয়ে যাও। কথাগুলো মন দিয়ে শুনেছিলেন শাকিব খান। কারণ নায়করাজ রাজ্জাককে তিনি মনে করতেন তার ফিল্মি দুনিয়ার সবচেয়ে বড় অভিভাবক।

 

সোমবার (২১ আগস্ট) সেই অভিভাকের মৃত্যুর খবর পেয়ে সবার আগে হাসপাতালে ছুটে যান শাকিব। দুচোখে তখন তার অশ্রু ঝরছে।কোনোভাবেই চোখের পানি সবার কাছ থেকে আড়াল করতে পারেননি।

হাসপাতাল থেকে এফডিসি, সেখান থেকে শহীদ মিনার, শহীদ মিনার থেকে গুলশান আজাদ মসজিদ, নায়করাজের বাসা, কবরস্থান কোথায় বাদ ছিল না তার পদচারণা।

বাংলা চলচ্চিত্রে নায়করাজ রাজ্জাকের অবদান সবার ওপরে বলে দাবি করেছেন ঢালিউডের সেরা এই নায়ক। নায়করাজের দাফন শেষে আবেগাপ্লুত কণ্ঠে শাকিব বলেন, রাজ্জাক স্যার আমাকে অনেক স্নেহ করতেন। তিনি ছাতার মত ছায়া দিয়ে রাখতেন। আজ মাথার উপর থেকে ছায়াটা সরে গেল আমার। আমাকে বিভিন্ন সময় তিনি ভালো পরামর্শ দিয়েছেন। আমি তার সন্তানের মতো ছিলাম। সবাই তার জন্য দোয়া করবেন। যাতে তিনি ওপারেও নায়করাজ হয়েই থাকেন।

 

শাকিব খান আরো বলেন, আমি সবসময় তার প্রেরণাকে সামনে রেখে এগিয়ে গেছি। সুখে হোক, দুঃখে হোক তার কাছে গিয়েছি। তিনি নিজেই একটা ইন্ডাস্ট্রি। চলচ্চিত্রের বিশাল এক অধ্যায়ের সমাপ্তি ঘটলো। তবে আমি মনে করি, এখানেই শেষ না। তার কাজ আমাদের সারা জীবন স্মরণ করিয়ে দেবে। আমরাও বিভিন্ন কাজের মাধ্যমে তাকে স্মরণ করবো।

নায়করাজের পরে যত স্টার-সুপারস্টার-অভিনেতা-অভিনেত্রী আসবে, তারা তার আদর্শকে সামনে নিয়েই এগোবে। আমি নায়করাজের আদর্শ নিয়ে সামনে এগিয়ে যার। তার অবদান বাংলা চলচ্চিত্র সবার ওপরে। তার সঙ্গে কাজ করে, কথা বলে অনেক কিছু শিখেছি আমি। আমার সব ভক্ত ও পুরো বাংলাদেশের মানুষের কাছে আমি তার বিদেহী আত্মার মাগফেরাতের জন্য দোয়া কামনা করছি।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *