172909

মুক্তিযোদ্ধা স্বামীর চিকিৎসায় প্রধানমন্ত্রীর সাহায্য চান আনোয়ারা

চলচ্চিত্র অভিনেত্রী আনোয়ারার স্বামী মহিতুল ইসলাম বীর মুক্তিযোদ্ধা। দেশ স্বাধীন করতে তিনি লড়েছিলেন জীবন বাজি রেখে। জীবন সায়াহ্নে এসে গুণী এই অভিনেত্রীর স্বামী স্ট্রোক করে প্যারালাইজড হয়ে মানবেতর জীবন পার করছেন রাজধানীর বনশ্রীর ফরাজী হাসপাতালে।

প্রতিদিনের চিকিৎসায় ব্যয় হচ্ছে প্রচুর টাকা। কিন্তু স্বামীর চিকিৎসার জন্য এত অর্থের জোগান দিতে হিমশিম খাচ্ছেন আনোয়ারা ও তার পরিবার।
বুধবার (১৬ আগস্ট) বিকেলে আনোয়ারা জানান এসব কথা। তিনি বলেন, ‘আমার স্বামী স্ট্রোকের পর প্যারালাইজড হয়ে শরীরের বাম পাশ অবশ হয়ে গেছে। গত ১৫ দিন ধরে ফরাজী হাসপাতালে তাকে ভর্তি রাখা হয়েছে। নিয়মিত ওষুধ খাওয়ানো, প্রেসার পরীক্ষা ছাড়াও অনেক চেকআপ করানো হচ্ছে। এতে অনেক অর্থ খরচ হচ্ছে।’

আনোয়ারা আরও বলেন, ‘এখন পর্যন্ত আমি তার চিকিৎসা চালিয়ে যাচ্ছি। আগের চেয়ে তার অবস্থা কিছুটা ভালো। তবে হাসপাতালের বিছানা ছেড়ে উঠতে পারে না। ডাক্তার বলেছেন, দীর্ঘমেয়াদি চিকিৎসা নিতে হবে। প্রতিদিন অনেক অর্থ খরচ হচ্ছে। কিছুদিন পর হয়তো আমি চিকিৎসা চালানোর সামর্থ্য হারাব। তখন কি হবে? কিছু প্রযোজকের কাছে টাকা পেতাম, তারা আজও টাকাগুলো দিল না। আমার অবস্থা জানার পরেও আমি পাওনা টাকা পেলাম না।’

তিনি বলেন, ‘ওসব টাকার আশা ছেড়ে দিয়েছি। উপরে একজন আছেন, তিনি এর বিচার করবেন। এখন আল্লাহর ওপর ভরসা রেখেছি। এরপর আমি আমাদের মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি জানাই, আমার স্বামী একজন বীর মুক্তিযোদ্ধা। আমার কর্ম বা কাজের দিকে তাকিয়ে নয়। প্লিজ একজন মুক্তিযোদ্ধাকে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন। কারণ একজন মুক্তিযোদ্ধাকে সাহায্য করা সরকারের দায়িত্ব।’

গেল ১৩ জুলাই স্ট্রোক করে রাজধানীর আগারগাঁওয়ের একটি হাসপাতালে ভর্তি আছেন আনোয়ারার স্বামী মহিতুল ইসলাম। সেখানে চিকিৎসা নেয়ার পর স্বামীকে নিয়ে বাসায় ফেরেন আনোয়ারা। এরপর সাভারের একটি হাসপাতালে ভর্তি করালেও কিছুদিন পর ফরাজী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এখন সেখানে চিকিৎসাধীন আনোয়ারার স্বামী।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *