নতুন সংবিধান নিয়ে গণভোট থাইল‌্যান্ডে

3.+Thaiসামরিক সরকারের মনোনীত কমিটির তৈরি করা নতুন একটি সংবিধান নিয়ে থাইল‌্যান্ডে গণভোট অনুষ্ঠিত হচ্ছে।স্থানীয় সময় রোববার সকাল থেকে দেশজুড়ে ভোট গ্রহণ শুরু হয় বলে জানিয়েছে বার্তা সংস্থা রয়টার্স, বিবিসি। রাত ৮টার মধ‌্যেই প্রাথমিক ফলাফল পাওয়া যাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কয়েক মাস ধরে রাজনৈতিক অস্থিরতা ও বিক্ষিপ্ত সহিংসতা চলার পর ২০১৪ সালে থাই সামরিক বাহিনী রক্তপাতহীন অভ‌্যুত্থানের মাধ‌্যমে ক্ষমতা দখল করে। পুরনো সংবিধান বাতিল করে জান্তা সরকার।

গণভোটের ফল নতুন সংবিধানের পক্ষে গেলে ২০১৭ সালে দেশটিতে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার পথ সুগম হবে। কিন্তু ভবিষ‌্যত সরকারকে সামরিক বাহিনীর নির্দেশিত পথেই দেশ চালাতে হবে বলে জানিয়েছেন পর্যবেক্ষকরা।

জান্তা সরকার দাবি করেছে, গণভোটে নতুন সংবিধান অনুমোদিত হলে পূর্ণ গণতন্ত্রে ফেরার জন‌্য তা একটি বড় পদক্ষেপ হবে। কিন্তু প্রচারণার ওপর বিধিনিষেধ থাকায় গণভোটকে পক্ষপাতদুষ্ট বলে অভিহিত করেছে সরকার বিরোধীরা। গণভোটের আগেই দেশটির প্রধান রাজনৈতিক দলগুলো নতুন সংবিধান প্রত‌্যাখ‌্যান করেছে।

এই গণভোট জান্তা সরকারের নেতৃত্বাধীন প্রধানমন্ত্রী প্রায়ুথ চানওচার জনপ্রিয়তা যাচাইয়ের প্রথম বড় পরীক্ষা। যিনি ক্ষমতা গ্রহণের পর থেকে গত দুবছর ধরে দেশটির রাজনৈতিক কার্যকলাপ দমন করে রেখেছেন।

গণভোটের আগে করা জরিপ বলছে, ভোটের ফলাফল সামান‌্য ব‌্যবধানে নতুন সংবিধানের পক্ষে যাবে, কিন্তু অধিকাংশ ভোটারই ভোট দেওয়া নিয়ে সিদ্ধান্তহীনতায় ভুগছেন।

জনগণ নতুন সংবিধান প্রত‌্যাখ‌্যান করলে পদত‌্যাগ করবেন না বলে জানিয়েছেন প্রায়ুথ। আগামী বছর নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে বলেও তিনি জানিয়েছেন তিনি। রোববারের গণভোটে নিজে ভোট দেওয়ার পর থাই জনগণকেও নিজ নিজ ভোট দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন তিনি।

গণভোট উপলক্ষ‌্যে দেশজুড়ে দুই লাখ পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। কোথাও কোনো প্রতিবাদ বা গোলযোগের খবর পাওয়া যায়নি।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *