357682

সৌদি ভ্রমণে বাংলাদেশসহ ৩৮ দেশের জন্য বিশেষ নির্দেশনা

ডেস্ক রিপোর্ট।। সৌদি আরব ভ্রমণে বাংলাদেশসহ ৩৮টি দেশের জন্য বিশেষ নির্দেশনা জারি করেছে দেশটির সরকার। গত বুধবার সৌদি স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তাদের ওয়েবসাইটে এ নতুন নির্দেশনা প্রকাশ করে।

এর আগে গত সোমবার রাত ১টা থেকে আগামী ১৭ মে পর্যন্ত সৌদি আরব নিজেদের দেশে আন্তর্জাতিক ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা স্থগিতের ঘোষণা দেয়।

বাংলাদেশ ছাড়াও অন্য যেসব দেশের ওপর নতুন ভ্রমণ নির্দেশনা জারি হয়েছে সেগুলো হলো- যুক্তরাষ্ট্র, আরব আমিরাত, মিসর, কুয়েত, ভারত, ইন্দোনেশিয়া, পাকিস্তান, ফিলিপাইন, মালয়েশিয়া, মরক্কো, স্পেন, ইরাক, ইথিওপিয়া, মালদ্বীপ, চীন, সুইজারল্যান্ড, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য, ইতালি, অস্ট্রেলিয়া, গ্রিস, জর্ডান, কেনিয়া, তুরস্ক, জার্মানি, বাহরাইন, লেবানন, নেদারল্যান্ডস, কাতার, সিঙ্গাপুর, দক্ষিণ আফ্রিকা, শ্রীলংকা, সুদান, নাইজেরিয়া, তিউনিসিয়া, ওমান ও মারিতিয়াস।

নির্দেশনায় বলা হয়েছে, সৌদিতে ভ্রমণের আগে অবশ্যই সংশ্লিষ্ট দেশে তাদের দূতাবাস থেকে অনুমোদন গ্রহণ করতে হবে। এ ছাড়া ভ্রমণকারীদের অবশ্যই দেখাতে হবে ডিসিআর মেডিক্যাল পরীক্ষার সনদ। এ ছাড়া যারা ইতোমধ্যেই ডব্লিউএইচও স্বীকৃত কোনো করোনা টিকার দুটি ডোজই গ্রহণ করেছেন অথবা যাদের প্রথম ডোজ গ্রহণের পর ১৪ দিন পার হয়েছে তারা সৌদি আসতে পারবেন। একই সঙ্গে ইতোমধ্যেই যারা করোনা সংক্রমণ থেকে সুস্থ হয়ে উঠেছেন বা যাদের সুস্থ হয়ে ওঠার পর এখনো ৬ মাস পার হয়নি তারাও এই অনুমতি পাবেন।

এদিকে সিএনএন ও দ্য স্ট্রেইটস টাইমস জানায়, করোনা সংক্রমণের খারাপ পরিস্থিতির কারণে বাংলাদেশসহ এশিয়ার চারটি দেশের নাগরিকদের জন্য ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে ফিলিপাইন ও মালয়েশিয়া। বাংলাদেশ ছাড়া অন্য দেশগুলো হলো- পাকিস্তান, শ্রীলংকা ও নেপাল। ফিলিপাইন জানিয়েছে, আজ (৭ মে) থেকে আগামী ১৪ তারিখ পর্যন্ত এই নিষেধাজ্ঞা কার্যকর থাকবে।

একই দিন মালয়েশিয়া কর্তৃপক্ষও এই চার দেশের বিরুদ্ধে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা জারির কথা জানায়। মালয়েশিয়ার মন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, বাংলাদেশ, শ্রীলংকা, পাকিস্তান ও নেপালের নাগরিকদের ওপর এ নিষেধাজ্ঞা কার্যকর থাকবে।

এর মধ্যে রয়েছে দীর্ঘমেয়াদি সামাজিক ভিজিট ভিসাধারী, ব্যবসায়ী ভ্রমণকারী এবং সামাজিক সফরকারীরাও। তবে ভিয়েনা কনভেনশনের ডিপ্লোম্যাটিক রিলেশন্স ১৯৬১-তে বর্ণিত নিয়ম অনুযায়ী, এ নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবেন কূটনৈতিক পাসপোর্টধারী ও কর্মকর্তারা। তবে তাদের বিদ্যমান অপারেটিং প্রক্রিয়া ব্যবহার করে মালয়েশিয়া প্রবেশ করতে হবে।

এ নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবেন মালয়েশিয়ার নাগরিকদের। তারা দেশে প্রবেশ করলেই থাকতে হবে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টিনে। তবে ঠিক কতদিনের জন্য এই নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে তা পরিষ্কার করা হয়নি।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *