355532

পরকীয়ার টানে দেড় বছরের বাচ্চা বাজারে ফেলে গেল মা

নিউজ ডেস্ক : শনিবার (৩ এপ্রিল) বিকেলে বেনাপোল পোর্ট থানার পুলিশ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে শিশুটিকে তার বাবার হতে তুলে দেয়। এর আগে শুক্রবার (২ এপ্রিল) শিশুটির মা মুন্নি বেগম তাকে বেনাপোল বাজারের একটি চায়ের দোকানের সামনে দাঁড় করিয়ে রেখে পালিয়ে যায়। জাগোনিউজ

পুলিশ ও শিশুর প্রতিবেশীরা জানান, বাগেরহাটের পিন্টু শেখের মেয়ে মুন্নির সাথে বিয়ে হয় নড়াইলের কালু শেখের। তবে বর্তমানে তাদের বসবাস বেনাপোলের সীমান্তবর্তী সাদিপুর গ্রামে। পিন্টু শেখ পেশায় ফুটপাতের সিঙ্গাড়া বিক্রেতা। তাদের ৮ বছরের সংসারে দুই সন্তান জন্ম নেয়।

তারা আরও জানান, শুক্রবার বিকেলে বেনাপোল বাজারে তোফাজ্জেল হোসেন নামে একজনের চায়ের দোকানের সামনে মুন্নী তার দেড় বছরের শিশু আলিফ হাসানকে দাঁড় করিয়ে রেখে পালিয়ে যায়। পরে শিশুটি কান্না শুরু করলে দোকানি তার মাকে খুঁজে না পেয়ে পুলিশকে অবহিত করে। পুলিশ শিশুটিকে উদ্ধার করে ছবি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রচার করলে তার বাবা থানায় এসে শিশুটিকে নিয়ে যায়।

শিশুটির বাবা কালু মিয়া বলেন, স্ত্রী পরকীয়ায় আসক্ত ছিল। সে সংসার করবে না বলে আগে কয়েকবার জানায়। বিষয়টি ঠিক হয়ে যাবে ভেবে তাকে বুঝিয়েছি। শুক্রবার আমার ৮ বছরের মেয়েকে বাড়িতে রেখে, দেড় বছরের বাচ্চাটিকে নিয়ে কোনো একসময় বাড়ি থেকে বের হয়। রাতে ফোন করে বলে ছেলেকে বেনাপোল বাজারে রেখে দিয়েছে। পরিচিতদের মাধ্যমে ফেসবুকে ছবির কথা শুনে পুলিশের কাছে গিয়ে ছেলেকে ফিরিয়ে আনি।’

বেনাপোল পোর্ট থানা পুলিশের এসআই মাসুম বিল্লাহ জানান, শিশুটির মা পরিকল্পিতভাবে তাকে ফেলে পালিয়ে যায়। শিশুটির বাবা থানায় এসে উপযুক্ত প্রমাণ দিয়ে নিয়ে গেছে।

 

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *