353817

ধুমধাম আয়োজন করে এতিম গৃহকর্মীর বিয়ে দিয়ে প্রশংসায় ভাসছেন উপজেলা চেয়ারম্যান

হবিগঞ্জ: বাড়িতে ধুমধাম বিয়ের আয়োজন। বিয়ের গেট, প্যান্ডেল থেকে শুরু করে আছে কয়েকশ মানুষের ভূরিভোজের আয়োজন। দেখে বোঝার উপায় নেই যাদের জন্য এরকম ধুমধাম আয়োজন সেই বর-কনে কেউই বাড়ির মালিকের কেউ নন।

পিতৃহীন এরকম বর-কনের ধুমধাম বিয়ের আয়োজন করে নজির সৃষ্টি করেছেন হবিগঞ্জের লাখাই উপজেলা চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট মুশফিউল আলম আজাদ। পেশায় একজন আইনজীবী হলেও মূলত তিনি রাজনীতিবীদ। বঙ্গবন্ধুর আদর্শে ছাত্রজীবন থেকে রাজনীতির পথচলা শুরু করে বর্তমানে তিনি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি।

জনপ্রতিনিধি হিসেবে উপজেলায় উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের পাশাপাশি ব্যক্তি উদ্যোগে বিভিন্ন সৃজনশীল কাজ করে মানুষের মন জয় করে চলেছেন। এমনই এক অনন্য আয়োজন ছিল পিতৃহারা দু’টি অসহায় পরিবারের বর কনের বিয়ের অনুষ্ঠান।

বর উপজেলার করাব গ্রামের মৃত আফরোজ মিয়ার ছেলে মনির মিয়া (২৫)। আর কনে পূর্ব বুল্লা গ্রামের মৃত অনু মিয়ার মেয়ে জোনাকি (১৯)। বৃহস্পতিবার (১৮ ফেব্রুয়রি) উপজেলা চেয়ারম্যান তার নিজ বাড়ি লাখাই উপজেলার করাব গ্রামে ঘটা করে তাদের বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন।

শুধু বিয়ের অনুষ্ঠানই নয়, নব দম্পতির জন্য প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ তহবিল থেকে ৩ লাখ টাকার বরাদ্দ দিয়ে তৈরি করে দেন দৃষ্টিনন্দন একটি বাড়ি। এছাড়া ব্যক্তিগত তহবিল থেকে বরের আর্থিক স্বচ্ছলতার জন্য নতুন ইজিবাইকসহ ব্যবহার্য যাবতীয় আসবাবপত্র বিয়েতে উপহার হিসেবে দেন তিনি।

জানতে চাইলে লাখাই উপজেলা চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি অ্যাডভোকেট মুশফিউল আলম আজাদ জানান, সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে দু’টি অসহায় পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছেন তিনি। কনে জোনাকি দীর্ঘদিন তার বাসার গৃহকর্মী হিসেবে পরিবারের একজন হয়ে উঠেছিল। পাশাপাশি বর তার পার্শ্ববর্তী বাড়ির বাসিন্দা।

 

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *