353306

ভ্যাকসিন নিয়ে যা বললেন তিন মন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক।। রাজধানীর শেখ রাসেল গ্যাস্ট্রোলিভার ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের টিকাকেন্দ্রে করোনাভাইরাসের ভ্যাকসিন গ্রহণ করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান এবং পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তনমন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন। ভ্যাকসিন নেওয়ার পর তারা সুস্থ ও ভালো বোধ করছেন মনে জানিয়েছেন।

ভ্যাকসিন নেওয়ার পর নিজের অনুভূতি জানাতে গিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, ‘টিকা নেওয়ার পরে আমরা সবাই সুস্থ আছি, ভালো আছি। কারো কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া লক্ষ্য করা যায়নি। এমনকি, আমরা যে হাতে টিকা নিয়েছি, সেই হাতেও কোনো ব্যথা অনুভব করিনি।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমরা এই মেসেজটি সারা বাংলাদেশে দিতে চাই। আপনারা জানেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আমরা টিকা আনতে সক্ষম হয়েছি। সত্তর লাখ ডোজ টিকা আমাদের হাতে আছে এবং আগামীতে আরও টিকা পাব। এই টিকা দেওয়ার জন্য বিরাট কর্মযজ্ঞ দরকার। ইতোমধ্যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর পরামর্শে ভ্যাকসিন কমিটি কাজ করে যাচ্ছে।’

‘এখন পর্যন্ত কোনো জেলা থেকে কোনো বিরূপ মন্তব্য আমরা পাইনি’ উল্লেখ করে জাহিদ মালেক আরও বলেছেন, ‘আমরা আশা করি আমাদের যে টিকা, সেটা সবচেয়ে নিরাপদ টিকা, ভালো টিকা। এটা সবাই সুন্দরভাবে দিতে পারবেন এবং কারো কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া হবে না। ছোটখাটো পার্শ্বপ্রতিক্রয়া দেখা দিলে তার চিকিৎসায় যা কিছু লাগবে তার ব্যবস্থা করে রাখা হয়েছে।’

ভ্যাকসিন নিলেও মাস্ক অবশ্যই পড়তে হবে জানিয়ে মন্ত্রী আরও বলেন, ‘ভ্যাকসিন মিনস ভিক্টরি। এই ভ্যাকসিনের মাধ্যমে ইনশাআল্লাহ আমরা (করোনার বিরুদ্ধে) ভিক্টরি অর্জন করতে সক্ষম হব।’

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তিমন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান বলেন, ‘সবাই আমরা চেষ্টা করে যাচ্ছি যাতে রোগাক্রন্ত না হই। বাংলাদেশ পৃথিবীর মধ্যে এত ঘনবসতিপূর্ণ একটি দেশ, আমাদের সম্পদও অনেক বেশি না। কিন্তু তারপরও বাঙালির ভেতরে একটি শক্তি কাজ করে। সেই শক্তি, যেটি বঙ্গবন্ধু জ্বেলেছিলেন। ঠিক একইভাবে বঙ্গবন্ধুকন্যা চেষ্টা করেন, মানুষের ভেতরে যে সুপ্ত শক্তি সেই শক্তিকে টেনে নিয়ে প্রত্যেকটি জিনিস তিনি মোকাবিলা করেন।’

ভ্যাকসিন নিয়ে কেমন লাগছে জানতে চাইলে তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘এখন পর্যন্ত কেমন লাগছে বুঝতে পারছি না। সত্যি কথা বলতে, আই ডোন্ট ফিল এনিথিং।’

পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তনমন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন বলেন, ‘আমরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে করোনা জয় করেছি। বাংলাদেশে পৃথিবীর মধ্যে মনে হয় ২০তম স্থানে আছি এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার মধ্যে প্রথমস্থানে।’

মো. শাহাব উদ্দিন আরও বলেন, ‘আমরা নিজেরা প্রথম ভ্যাকসিন নিয়েছি এবং আমরা সুস্থ আছি। আমি এর আগে করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলাম। তখনও করোনা জয় করে আপনাদের মাঝে এসেছি এবং আজ ভ্যাকসিন নিয়ে এটা জয় করলাম। এখন গোটা জাতি, বাঙালি জাতি করোনা জয় করবে ইনশাআল্লাহ।’

 

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *