352117

জীবন পাল্টে দেয়ার মতো মুফতি মেনকের ১০ উপদেশ

ইসলামি ডেস্ক : ইসমাইল ইবনে মুসা মেঙ্ক হলেন জিম্বাবুয়ের ‘গ্র্যান্ড মুফতি’। একজন বিখ্যাত মুসলিম শিক্ষাবিদ, ইসলাম প্রচারক ও বক্তা। তবে মুফতি মেঙ্ক নামে অধিক পরিচিত।

জিম্বাবুয়ের মুসলিম জনসংখ্যার শিক্ষার চাহিদা পূরণের জন্য প্রতিষ্ঠা করেছেন দারুল ইলম (ইসলামিক এডুকেশনাল সেন্টার)। প্রতিষ্ঠানটির প্রধান পরিচালকও তিনি। মুফতি মেঙ্ক বিশেষত পূর্ব আফ্রিকায় বিপুল জনপ্রিয় এবং আন্তর্জাতিকভাবে মুসলিম-বক্তা হিসেবে পরিচিত মুখ।

পাঠকদের জন্য আজ থাকছে জীবন পাল্টে দেযার মতো তার ১০ উপদেশ।

১. মানুষকে ব্যক্তিগত প্রশ্ন করা বন্ধ করুন। কেন কেউ এখনো বিয়ে করেনি বা বিয়ে করলেও বাচ্চা নিচ্ছে না-সেটা আসলেই আপনার জানার প্রয়োজন নেই। তাই এমন প্রশ্ন করা থেকে বিরত থাকুন।

২. আপনার চারপাশে যা চলছে তা আপনি নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন এমন নয়। কিন্তু আপনার নিজের ভেতরে যা আছে তা অবশ্যই আপনি নিয়ন্ত্রণ করতে পারবেন! তাই নিজের ভেতরটা আগে নিয়ন্ত্রণ করুন। নয়তো বেঁচে থাকার শান্তি নষ্ট হবে। আপনাকে কেন্দ্রিক, ফোকাসড এবং একক মনের হতে হবে। যাতে আপনি আল্লাহর সহায়তায় যেকোন ঝড় মোকাবেলা করতে পারেন।

৩. মাঝে মাঝে নয় প্রতিদিনই কৃতজ্ঞ থাকুন। নিজে থেকে কোন কিছু মঞ্জুর করে নিও না। কারণ আল্লাহ যতটুকু দেন ততটুকুর উপর সন্তুষ্ট থাকুন ও আপনার যা আছে তার উপর খুশি থাকুন ও আল্লাহর প্রতি কৃতজ্ঞ হোন।

৪. নিজের জীবনকে অন্যের সাথে তুলনা করবেন না। সোশ্যাল মিডিয়ায় তাদের ‘পারফেক্ট’ লাগতে পারে কিন্তু বাস্তব জীবনে তাদের সবারই সমস্যা আছে।

৫. আপনার হৃদয় সর্বদা আল্লাহর সাথে সংযুক্ত রাখুন। দেখবেন আপনি আপনার জীবনের এমন একটি পর্যায়ে পৌঁছে যাবেন, যেখানে আপনি তাকে সম্পূর্ণরূপে বিশ্বাস করবেন। এবং আপনার মত যখন সব কিছু না হবে তখন আপনি আর মন খারাপ করবেন না।

৬. নিজের কাজের প্রতি অটল থাকুন। নিজের কাজ নিজে করুন এবং লোকে কি বলে তা নিয়ে চিন্তা করবেন না। এটা তাদের কাছে অর্থহীন হতে পারে কিন্তু এটা ঠিক আছে। আশা করবেন না যে সবাই আপনাকে বুঝবে। তাদের বুঝতে হবে না। এটা আপনার এবং আল্লাহর মধ্যে সীমাবদ্ধ থাকলেই চলবে। তাই চালিয়ে যান!

৭. আল্লাহ তায়ালা যা করছেন ও যা কিছু করতে পারেন তা কখনো ছোট করে দেখবেন না । আপনি এটা করতে পারবেন না, তার মানে এই নয় যে আল্লাহ এটা করতে পারবেন না! তিনি হলেন বিশ্বজগতের প্রভু। তিনি যদি রাতকে দিনে রুপান্তর করতে পারেন, তবে চোখের পলকে অবশ্যই আমাদের অবস্থার পরিবর্তন করতে পারবেন। তিনি তখনই করবেন যখন তিনি জানবেন যে, এখন করার সময় সঠিক!

৮. মাঝে মাঝে আপনি একই পুরনো সমস্যার সম্মুখীন হতে থাকেন কারণ আপনি একই মানুষকে আপনার জীবনে বার বার ফিরে আসতে দেন। মাঝে মাঝে আল্লাহ তায়ালা চান আপনি এটি সম্পূর্ণ স্টপ রাখুন, কিন্তু আপনি স্টপ রাখতে অস্বীকার করেন । সম্ভবত এটা রিউইন্ড চাপানো বন্ধ করার এবং ডিলিট বাটনে চাপার সময়!

৯. যখন তুমি জীবনে এলোমেলো হয়ে যাও, কিংবা যখন তুমি নিজেকে ধোকায় ফেলো। অথবা যখন তুমি মনে কর যে, তুমি এত বড় পাপ করেছ; তার আর কোন উপায় নেই। তখন আল্লাহর দিকে ফিরে যাও; তাঁর থেকে দূরে যেও না। কেননা তিনি পরম দয়ালু। আপনি আন্তরিকভাবে তাঁকে ডাকলে তিনি অবশ্যই আপনাকে পথপ্রদর্শন করবেন!

১০. একবার আপনি পাপ করে ফেললে, তা স্বীকার করে নিন, দ্রুত অনুশোচনা করুন এবং এগিয়ে যান। আল্লাহর সাথে আপনার স্লেট পরিষ্কার করুন। অতিরিক্ত চিন্তা করে সময় নষ্ট করবেন না। এটি আপনার উপর বাস করে। এটি আপনাকে ধ্বংস করে এবং আপনার ভবিষ্যত ধ্বংস করে। শয়তান এটাই চায় এবং সে এটাই করবে! তাকে সফল হতে দিও না। সূত্র: মুফতি মেনক এর ফেসবুক স্টাটাস থেকে অনুবাদ।

 

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *