344948

অপর্যাপ্ত ঘুম রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা কমায়

অতিরিক্ত পরিশ্রম বা কাজের চাপ বেশি দিন স্থায়ী হলে তা মানুষের রোগ-প্রতিরোধের ক্ষমতাকে কমিয়ে দেয়। নেদারল্যান্ডস ও যুক্তরাজ্যের গবেষকরা নতুন গবেষণায় দেখেছেন, দীর্ঘদিন ধরে ঘুম কম হলে তা একইভাবে মানুষের রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতাকে আশঙ্কাজনক হারে কমাতে ভূমিকা রাখে। ‘স্লিপ’ জার্নালে এ গবেষণার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। নেদারল্যান্ডসের ইরাসমাস এমসি ইউনিভার্সিটি মেডিকেল সেন্টার রটারড্যাম ও যুক্তরাজ্যের সারে ইউনিভার্সিটির হেলথ অ্যান্ড মেডিকেল সায়েন্সেস অনুষদের গবেষকরা এক যৌথ গবেষণার পর এ তথ্য দিয়েছেন।

গবেষকরা১৫ জন পূর্ণবয়স্ক তরুণের রক্তে শ্বেত রক্তকণিকার তুলনামূলক মাত্রা পর্যবেক্ষণ করেন। ওই তরুণদের একটি দল স্বাভাবিক ঘুমে অভ্যস্ত। অপর দলটির তরুণরা ঘুমের সমস্যায় ভুগছেন। দেখা গেল, ঘুমের সমস্যায় আক্রান্ত তরুণদের শ্বেত রক্তকণিকায় এর নেতিবাচক প্রভাব পড়ছে। ফলে ওই তরুণদের দিনে বা রাতে স্বাভাবিক কাজ করার ক্ষমতা আশঙ্কাজনক হারে কমে গেছে। এদিকে এর আগে বিভিন্ন গবেষণায় প্রমাণিত হয়েছে, অপর্যাপ্ত ঘুমের সঙ্গে উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস, স্থূলরোগ সম্পর্কিত। তবে পর্যাপ্ত ঘুম মানুষের রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা স্বাভাবিক রাখতে সহায়তা করে।

নতুন এ গবেষণায় প্রথম দলটিকে টানা এক সপ্তাহ গড়ে ৮ ঘণ্টা ঘুমাতে অভ্যস্ত করা হয়। চা, কফি, অ্যালকোহল বা ওষুধ সেবন সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেয়া হয়। এতে দেখা যায়, তাদের রক্তে শ্বেতকণিকার মাত্রা স্বাভাবিক রয়েছে। অন্যদিকে দ্বিতীয় দলটিকে টানা ২৯ ঘণ্টা জাগিয়ে রাখার পর দেখা যায়, তাদের রক্তের শ্বেতকণিকার মাত্রা অস্বাভাবিক হারে কমে আসছে। তারা রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা ক্রমেই হারিয়ে দুর্বল হয়ে পড়ে। আর তাই গবেষকদের পরামর্শ, প্রতিদিন নিয়মিত ৮ ঘণ্টা ঘুম মানুষকে কর্মক্ষম ও প্রফুল্ল রাখতে সহায়তা করে।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *