323540

নওয়াজের লা’লসার শি’কার আমিও, বি’স্ফোরক মন্তব্য অভিনেত্রীর

বিনোদন ডেস্ক : দাম্পত্য জীবন আর প’রকী’য়া নিয়ে এই করোনাকালে বি’পর্য’স্ত বলিউড অভিনেতা নওয়াজুদ্দিন সিদ্দিকি।বিবাহবি’চ্ছেদ চেয়ে দিন কয়েক আগেই নোটিশ পাঠিয়েছেন অভিনেতা নওয়াজুদ্দিন সিদ্দিকীর স্ত্রী আলিয়া সিদ্দিকী ওরফে অঞ্জনা কিশোর পাণ্ডে। অভিনেতা এ দিকে ঈদ পালনের জন্য এরই মধ্যে ভারতের উত্তরপ্রদেশে নিজের বাড়িতে পৌঁছে গেছেন। তাকে পাঠানো নোটিসেরও কোনও জবাব দেননি তিনি।

আর ঠিক এই সময়েই গোদের উপর বি’ষফোঁ’ড়ার মতো আবার সামনে এসেছেন নওয়াজের পুরনো প্রেমিকা নীহারিকা সিংহ। ‘মিটু’ আন্দোলনে নওয়াজের বি’রু’দ্ধে যিনি হে’নস্থার অ’ভি’যোগ তুলেছিলেন।

মুম্বাইয়ের এক সংবাদমাধ্যমকে নীহারিকা জানিয়েছেন, ‘‘আমিও বহু বার নওয়াজের অবদমিত কামের স্বীকার হয়েছি।

’’ ‘মিস ইন্ডিয়া’ নীহারিকা অ’ভিযোগে বলেছিলেন, ‘ মিস লাভলি’ ছবির শুটিংয়ের সময় নওয়াজের সঙ্গে স্ক্রিন শেয়ার করি। ওই সময়ে সারারাত শুট করে সকালে নওয়াজ আমার বাড়ি আসতে চায়, আমি ওকে ব্রেকফাস্টের জন্য আমন্ত্রণ জানাই। কিন্তু দরজা খুলতেই ও জড়িয়ে ধরে আমায়। আমি ছাড়াতে চাইলেও ছাড়ে না। আমিও শেষে হাল ছেড়ে দিই। এ রকম শা’রী’রিক সম্পর্ক স্থাপনের জন্য নওয়াজ প্রায় জো’র করত আমায়।

নীহারিকা পরবর্তীকালে উপলব্ধি করেন, শুধুমাত্র যৌ’ন’তা’র জন্যই নওয়াজ তার সঙ্গে সম্পর্ক স্থাপন করেছিলেন।

তিনি জানান, তাদের সম্পর্ক নিয়ে নওয়াজের সঙ্গে আলোচনা করতে চাইলে নওয়াজ তাকে বলতেন, আমার স্বপ্ন ছিল, আমার স্ত্রী হবে মিস ইন্ডিয়া বা এক জন অভিনেত্রী, যেমন মনোজ বাজপেয়ী আর পরেশ রাওয়াল করেছেন।

তা হলে কি নওয়াজের অন্য সম্পর্কে জড়িয়ে পড়া বা অবদমিত যৌ’নতা’ড়না তার বিবাহবিচ্ছেদের অন্যতম কারণ হয়ে দাঁড়াল?

নওয়াজ মুখে কুলুপ এঁটেছেন। যদিও তার আত্মজীবনী ‘অ্যান অর্ডিনারি লাইফ: আ মেময়ার’-এ নওয়াজ তার সঙ্গে নীহারিকার সম্পর্কের কথা স্বীকার করে লেখেন, ‘‘নীহারিকার সঙ্গে কিছু দিন আলাপের পর ওকে বাড়িতে মাটন খেতে ডাকি। এর পর আমাকে ওর বাড়িতে ডাকল।

বলল, ‘মাটন খাওয়াবে’। আমি সে দিন প্রথম বার নীহারিকার বাড়ি গেলাম। দরজা বন্ধ ছিল। তা খোলামাত্র দেখে অবাক হলাম। দেখলাম, হাজারটা মোমবাতির আলো। আমি ওকে জড়িয়ে ধরে সোজা বেডরুমে নিয়ে চলে গেলাম। সেই শুরু হল আমাদের প্রেম। মাত্র দেড় বছর ছিল সেই সম্পর্ক।’’

লকডাউনের সময় যদিও এই বিষয়ে কোথাও কোনও বিবৃতি দেননি নওয়াজ। কিন্তু ‘ বোম্বাই টাইমস’কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নওয়াজের স্ত্রী অঞ্জনা জানান, বেশ কিছু বছর ধরেই তাদের বিবাহিত জীবন সুখের যাচ্ছিল না। অনেক কিছু সহ্য করতে হয়েছে তাকে। কিন্তু সে সব ঘটনার বেশির ভাগই প্রকাশ্যে বলা তার পক্ষে অস্বস্তিকর।

আর কী অস্বস্তিকর বিষয় আছে যা অঞ্জনা বলতে চাইছেন না? তা হয়তো বলবে সময়।

প্রসঙ্গত, অভিনেতার ৪৬’র জন্মদিনেই বি’চ্ছে’দ চেয়ে আইনি নোটিস পাঠান স্ত্রী আলিয়া সিদ্দিকি। নওয়াজের সঙ্গে ১১ বছরের সংসারে তার আ’ত্মসম্মান সম্পূর্ণ শেষ হয়ে গিয়েছে বলে অ’ভিযোগ করেন আলিয়া। পাশাপাশি আরও বেশ কিছু কারণ রয়েছে কিন্তু এই মুহূর্তে তা প্রকাশ্যে আনতে চান না। উপযুক্ত সময় হলে সবকিচু বলবেন বলে জানান আলিয়া সিদ্দিকি।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *