309879

সড়ক দুর্ঘটনায় মা মরলেও অলৌকিকভাবে বেঁচে গেল ১ দিনের নবজাতক

বুধবার রংপুরের তারাগঞ্জে বাসুর বানদায় সড়ক দুর্ঘটনায় এক গৃহবধূ নিহত হলেও তার একদিনের কন্যাসন্তান অলৌকিকভাবে বেঁচে গেছে।

জানা গেছে, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের গিলাবাড়ী গ্রামের সাজু মিয়ার (৩০) স্ত্রী সাথী আক্তার (২৫) মঙ্গলবার সন্ধ্যায় বাড়িতে একটি ফুটফুটে কন্যা সন্তানের জন্ম দেন। জন্মের পরই শিশুটি ঠান্ডাজনিত সমস্যায় ভুগতে থাকে।

পরে বুধবার সকালে শিশুটিকে নিয়ে অ্যাম্বুলেন্স যোগে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উদ্দেশে রওনা দেন ওই দম্পতি। তার শাশুড়ি ও মামাতো ভাই রব্বানী রহমান তাদের সঙ্গে ছিল।

সকাল পৌনে আটটায় রংপুর-দিনাজপুর মহাসড়কের তারাগঞ্জের বাছুরবান্দা এলাকায় ঢাকা থেকে আসা ডিপজল পরিবহনের একটি বাসেরসঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয় ওই অ্যাম্বুলেন্সের।

এতে ঘটনাস্থলেই মারা যান সাথী আক্তার ও তার মামাতো ভাই রব্বানী রহমান। গুরুতর আহত অবস্থায় মা ও স্বামী সাজুসহ চালককে রংপুরমেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

তারাগঞ্জ হাইওয়ে থানার এসআই সাইফুল ইসলাম জানান, হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন অ্যাম্বুলেন্স চালক রুবেল মিয়া।

এখনও হাসপাতালে আছে একদিনের ওই কন্যাশিশু। আর চিকিৎসাধীন আছেন কন্যাশিশুটির বাবা সাজু মিয়া ও নানি।

নিহতের পরিবার জানায়, মা মারা গেলেও তার একদিনের বাচ্চাটি অলৌকিভাবে বেঁচে গেছে। এখন শুধু ফ্যালফ্যাল করে তাকিয়ে আছে সে।শিশুটিকে তারা কীভাবে লালন পালন করব এখন সেই চিন্তা করছেন তারা।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *