300516

দেনার দায়ে এক পরিবারের পাঁচ কৃষকের আ’ত্মহ’ত্যা!

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ দেনার দায়ে বিষপান করে সম্প্রতি এক কৃষক আ’ত্মহ’ত্যা করেছেন। পূর্বসূরিদের মতো চাষাবাদই ছিল ওই কৃষকের রুটিরুজি। এর আগেও ওই পরিবারের কয়েক প্রজন্ম মিলিয়ে পাঁচ পুরুষ চাষের ঋণের অস্বাভাবিক বোঝার ভারে আ’ত্মহ’ত্যা করেন।

লাভপ্রীত সিং নামে ২২ বছর বয়সী ভারতের পাঞ্জাবের বারনালা গ্রামের ওই কৃষক এক একর জমিতে চাষবাস করে সংসার চালাতেন। গোলাভরা শষ্যের স্বপ্নে পূর্বসূরিদের মতোই চাষই ছিল লাভপ্রীতের জীবিকা। কিন্তু নানাবিধ কারণে চাষে লাভের মুখ দেখননি লাভপ্রীত।

ধার করে চাষ করে, উল্টা দেনার বোঝা বাড়িয়েছেন তিনি। এবার নয়তো পরের বার ঠিক শোধ করবেন। সেই আশায় আশায় মহাজনি ঋণ বাড়িয়েছেন। সেই ভার লাঘবে মুক্তির পথ খোঁজেন চাষের জমিতে ছড়ানো কীটনাশক পানে। আর এতেই মৃত্যু হয় লাভপ্রীতের।

পরিবার জানায়, লাভপ্রীতের দাদা একই কারণে কয়েক বছর হল আ’ত্মহ’ত্যা করেছেন। লাভপ্রীতের বাবা, দুই ঠাকুরদা, তার বাবাও তাই। চাষের জন্য দেনা করে, পরে আর সামাল দিতে পারেননি। জমিজমাও বেচে দিয়েছেন।

সত্তর বছর আগে তাদের ১৪ একর জমি ছিল। সেটা এখন ঠেকেছে মাত্র এক একরে। সেটাও আর রেখে কী হবে, এমনটাই ভাবছে পরিবারটি। পুরুষশূন্য পরিবারে যেখানে মাঠে লাঙল ধরার কেউ নেই, সেখানে কে ধরবে সংসারের হাল! তা ভেবেই দিন পার করছে পরিবারটি।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *