298422

এবার ‘জয় শ্রীরাম’এর সমালোচনায় নুসরাত

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ২০১৯ লোকসভা নির্বাচনে বসিরহাট কেন্দ্র থেকে নির্বাচিত হয়েছেন নুসরাত জাহান প্রায় ৩.৫ লক্ষ ভোটে৷ তার কাছে পরাজিত হয়েছেন নিকটতম প্রতিদ্বন্দী বিজেপি প্রার্থী সায়ন্তন বসু ও কংগ্রেস প্রার্থী কাজী আবদুর রহিমকে পরাজিত করে সংসদে পা রেখেছেন তিনি।

বিয়ের প্রায় কয়েকদিন পরেই সংসদে উপস্থিত হয়েছিলেন শপথ নিতে এক্কেবারে নতুন বউয়ের বেশে তাই নিয়ে অনেকেই অনেক মন্তব্য করেছেন। তা নিয়ে সংবাদ মাধ্যমে প্রতিক্রিয়াও দিয়েছেন তৃণমূল সাংসদ। তবে এবার এক অন্য বিষয়ে নিজের ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তিনি।

রাজনীতির পরিমণ্ডল ছাড়িয়ে ইদের শুভেচ্ছা বিনিময়েরও নাকি ভাষা হয়ে দাঁড়িয়েছে ‘জয় শ্রীরাম’। এমনই অভিযোগে সরব বসিরহাটের তারকা সাংসদ নুসরাত জাহান। যদিও যাঁরা ইদের শুভেচ্ছা জানাতে গিয়ে ‘জয় শ্রীরাম’ লেখা মেসেজ পাঠিয়েছেন তাঁদের কোনও উত্তর দেননি অভিনেত্রী।

সম্প্রতি এক সংবাদমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে ‘জয় শ্রীরাম’ শুভেচ্ছার পালটা জবাব দিলেন তৃণমূল সাংসদ। তিনি জানিয়েছেন, ভগবানের নাম নেওয়া বা কোনও ধার্মিক শ্লোগান দেওয়া কোনও খারাপ বিষয় নয়। মানুষের পরিচয়ে ধর্মের এক বিশেষ গুরুত্ব রয়েছে। তবে অযথা অন্যের উপরে চাপিয়ে দেওয়াটা ভুল বিষয়।

মুসলমান পরিবারের সন্তান হওয়া সত্ত্বেও কীভাবে বিয়ের পর মঙ্গলসূত্র, চূড়া, সিঁদুর পরেন সেই প্রশ্ন তুলতে ছাড়েননি সমালোচকরা। এই প্রসঙ্গে নিন্দুকদের জবাব দিয়েছেন তারকা সাংসদ। তিনি বলেন, যখন পোশাক নিয়ে বিতর্ক হয়েছিল আমি কোনওরকম উত্তর দিইনি। আমার অনুগামীরা সোশ্যাল মিডিয়ায় আমার জন্য লড়াই করেছেন। সংসদে আমার সহকর্মীরাও আমার পাশে থেকেছেন। কিন্তু সবার মনে রাখা উচিত একজন সাংসদের সঙ্গে আমি একজন মানুষও। কী পরব, কাকে বিয়ে করব তা নিয়ে আমার নিজের পছন্দ রয়েছে।

সাংসদ বলেন, কখনও কখনও মনে হয় আমার রাজনীতিক হওয়ারই কথা ছিল। প্রথম দিন সংসদে গিয়ে দারুণ অনুভূতি হচ্ছিল। নতুন সদস্য হওয়ায় সবাই খুব সাহায্যও করেছেন। মুখ্যমন্ত্রী আমার উপর বিশ্বাস রেখেছেন।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *