298398

শিক্ষিকার সঙ্গে ধরা, অধ্যক্ষ বললেন ‘ভুল করেছি, ক্ষমা করে দিন’

পাবনার সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজের (টিটিসি) ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সুজাউদ্দৌলাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। স্কুলশিক্ষিকার করা শ্লীলতাহানির মামলায় সুজাউদ্দৌলাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

শনিবার দুপুরে পাবনার আমলি আদালতে-১ হাজির করা হলে ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ সুজাউদ্দৌলার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেন বিচারক। এর আগে শুক্রবার বিকেলে স্কুলশিক্ষিকা বাদী হয়ে পাবনা সদর থানায় শ্লীলতাহানির মামলা করেন। ওই মামলায় অধ্যক্ষ সুজাউদ্দৌলাকে গ্রেফতার দেখায় পুলিশ।

বৃহস্পতিবার মধ্যরাতে কলেজের গেস্ট হাউসে অধ্যক্ষের সঙ্গে ওই শিক্ষিকাকে দেখে বাইর থেকে তালা দিয়ে পুলিশে খবর দেন কলেজের শিক্ষার্থীরা। এ নিয়ে উত্তেজনার একপর্যায়ে অধ্যক্ষ এবং শিক্ষিকাকে উদ্ধার করে থানায় নেয় পুলিশ।

এরপর শুক্রবার দুপুর পর্যন্ত ওই নারী এবং অধ্যক্ষ নিজেদের নির্দোষ বলে দাবি করেন। পরে পুলিশের ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদে মুখ খোলেন তারা। সেই সঙ্গে শ্লীলতাহানির মামলা করেন স্কুল শিক্ষিকা। মামলার বাদী সিরাজগঞ্জের একটি হাইস্কুলের শিক্ষিকা। তিনি পাবনা সরকারি টিচার্স ট্রেনিং কলেজ (টিটিসি) থেকে বিএড শেষ করে উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ে এমএড করছেন।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *