277239

পুরুষ সেজে নাপিতের কাজ!

ডেস্ক রিপোর্ট।। মেয়েটির বাড়ি ভারতের উত্তর প্রদেশে। নাম নেহা শর্মা। একজন নারী হয়েও জীবিকার তাগিদে নাপিতের কাজ করেন তিনি। নেহার বাবা ২০১৩ সালে পক্ষাঘাতে আক্রান্ত হন, তারপর থেকেই এ কাজ করছেন তিনি। নেহাকে তার কাজ সম্পর্কে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি বলেন, ‘আমি নারী, কিন্তু করছি পুরুষের কাজ। কাজটা আমার ভালো লাগে না, কিন্তু উপায় নেই।’ নেহার পোশাকের ব্যাপারে তিনি বলেন, নাপিতের কাজ শুরুর প্রথম দিন থেকেই আমি এই পোশাক পরছি। চুল ও কেটে ফেলেছি।

এরপর তিনি বেশ খানিকটা আফসোসের সুরেই বললেন, আমি একজন নারী কিন্তু এখন ছেলে হিসেবেই বাঁচতে চাই। তার কাছে কাজের অভিজ্ঞতা সম্পর্কে জানতে চাইলে সে বলে, একদিন একটি লোক আমার নাম জানতে চেয়েছিল। বলেছিলাম, নেহা শর্মা। সেই ব্যক্তি এরপর দুঃখ প্রকাশ করে বলে, তুমি যে মেয়ে তা আগে জানলে তোমাকে দিয়ে আমার দাড়ি কামাতাম না।

নেহা আরো বলেন, সমাজে এটা নিয়ে অনেকরকম কথাবার্তা হয়, কিন্তু আমি এগুলোতে কোন কান না দিয়ে আমার কাজটাই করে যাই। নেহার কাছে দাড়ি কাটাতে আসা একজন খদ্দের বললেন, আগে আমি ভাবতাম শুধু পুরুষরাই নাপিতের কাজ করতে পারে। তবে এখন মনে করি, নারীরাও পারে। বর্তমানে নেহার উপার্জনেই চলছে নেহাদের সংসার। সেখানে কিছু সাহায্য করছে নেহার ছোট বোন।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *