fbpx
Connect with us

খেলা

রুবেলের কাছে যে ‘প্রশ্নের’ উত্তর নেই

Published

on

স্পোর্টস ডেস্ক।। বাংলাদেশ দলের ডানহাতি পেসার রুবেল হোসেন। ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ছিলেন না দলে। তবে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে টেস্ট দলে না থাকলেও ফিরেছেন ওয়ানডে দলে। মিরপুরে ওয়ানডে সিরিজ ঘিরেই চলছে রুবেল হসেনের প্রস্তুতি। আজ বুধবার অনুশীলনের পর কথা বলেছেন গণমাধ্যমের সামনে। সাংবাদিকদের একটি প্রশ্নের উত্তর ছিল না রুবেলের কাছে। ওয়ানডে দলের অধিনায়ক একজন পেসার, অন্যদিকে টেস্ট দলের অধিনায়ক একজন স্পিনার (অলরাউন্ডার)। টেস্টের অধিনায়ক পেসার হলে কেমন হবে এমন প্রশ্নের উত্তর খুঁজে পাচ্ছিলেন না এ ডানহাতি পেসার।

তিনি নিজেই বলেন, ‘না আমার কাছে মনে হয় ঠিক আছে,ওয়ানডেতে মাশরাফি ভাই পেসার, টেস্টে সাকিব ভাই স্পিনার। আসলে এই প্রশ্নের অ্যান্সার আমি পাচ্ছি না কি হবে।’ আগামী ৯ তারিখ থেকে শুরু হবে উইন্ডিজের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ। মিরপুরে অনুশীলনও করেছে দল। টেস্ট সিরিজ জিতে ফুরফুরে মেজাজে আছেন খেলোয়াড়রা। তবে দুই টেস্টে পেসারদের কোনো ভূমিকাই ছিল না। প্রথম টেস্টে মোস্তাফিজ খেললেও ওভার করেছেন মাত্র চারটি। দ্বিতীয় টেস্ট ছিল পেসারবিহীন একাদশ। চার স্পিনার দিয়েই বাজিমাৎ করে বাংলাদেশ।

টাইগার পেসার রুবেলকে কাছে পেয়ে এ প্রসঙ্গে প্রশ্নও করেন সাংবাদিকরা। টেস্টে স্পিনাররা ভালো করায় বাড়তি প্রেশার আছে কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে রুবেল বলেন, ‘না আসলে আমাদের সিচুয়েশনটা ওইরকম ছিল। আমাদের উইকেটটা ওইভাবে তৈরি করা ছিল, স্পিনারদের ফেভারেই।’ তবে তার কাছে পেসারদের না খেলাটা দুঃখজনক। ‘আর অবশ্যই স্পিনাররা যখন ভালো করে, পেস বোলাররা খেলতে পারছে না, এটা একটু দুঃখজনক। তারপরও আমার কাছে মনে হয় ওয়ানডেতে এমন হবে না, ওয়ানডেতে একটু ডিফারেন্ট হবে। উইকেটে ওইভাবে স্পিন থাকবে না। আমার কাছে মনে হয় না ওরকম হবে’ এভাবেই নিজের অনুভূতি প্রকাশ করছিলেন ২০১৫ বিশ্বকাপের ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জয়ের নায়ক।

টেস্টে স্পিনাররা বাজিমাৎ করলেও ওয়ানডেতে জেতানোর ক্ষমতা রাখে পেসাররা। ‘ ওয়ানডে জিতিয়েছেও পেস বোলাররা, আপনি যদি দেখেন, ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরেও। এই কন্ডিশনেও অবশ্যই জেতাতে পারবে, ওয়ানডেতে উইকেট স্পিন সহায়ক থাকবে না, যেভাবে টেস্টে ছিল। আর আমাদের যেই পেস বোলাররা আছে, এই কন্ডিশনে অবশ্যই ম্যাচ জেতাতে পারব।’ আগামী ৯ তারিখ শেরে বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে ওয়ানডে সিরিজের প্রথম ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে। বাকি দুই ম্যাচ হবে ১১ ও ১৪ তারিখ। দ্বিতীয় ওয়ানডে মিরপুরে হলেও তৃতীয় ও শেষ ওয়ানডে হবে সিলেট আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে।

Click to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

জনপ্রিয়