172828

শাকিব ‘সরি’ বললেই সব সমস্যা শেষ!

মধ্যরাতে ঘরোয়া বৈঠকে প্রদর্শক সমিতির সঙ্গে চলচ্চিত্র পরিবারের সদস্যদের দ্বন্দ্বের অবসান হলো। প্রদর্শক সমিতির নেতারা এখন ঘোষিত নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
তবে প্রদর্শক এবং শিল্পী পরিবারের দ্বন্দ্ব নিরসনের উদ্যোগ নেওয়া হলেও শাকিব খানের বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। চলচ্চিত্র পরিবার তাকিয়ে আছে শাকিবের দিকে। শাকিব ‘সরি’ বললেই সব সমস্যা শেষ—সিনেমার শেষ দৃশ্যের মতো। সবাই সুখে-শান্তিতে বাস করবে। হ্যাপি এন্ডিং!
১৮ জুলাই বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিবারের ব্যানারে আহ্বায়ক আকবর হোসেন পাঠান ফারুক এবং সদস্যসচিব বদিউল আলম খোকনের স্বাক্ষরিত একটি প্রেস বিজ্ঞপ্তি পাঠানো হয় প্রথম আলোতে। এতে বলা হয়, চিত্রনায়ক শাকিব খান অভিনীত ‘পুরোনো এবং নতুন’ কোনো ছবির শুটিংয়ের কাজে ‘বাংলাদেশ চলচ্চিত্র পরিবার’-এর অন্তর্ভুক্ত সংগঠনগুলোর কোনো সদস্য অংশ নেবেন না। শাকিব খান আছেন, এমন কাজ থেকে নিজেদের বিরত রাখবেন।
ওই বিজ্ঞপ্তির পাঁচ দিন পর বিজ্ঞপ্তি বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে শাপলা মিডিয়ার স্বত্বাধিকারী সেলিম খান আদালতে একটি রিট আবেদন করেন। পরে শুনানি শেষে আদালত সিদ্ধান্ত দেন, আগামী তিন মাসের জন্য শাকিব অভিনীত নির্মাণাধীন ছবিগুলোর কাজ নির্দ্বিধায় চলতে পারবে। চলচ্চিত্র পরিবারের দেওয়া সেই বিজ্ঞপ্তির কার্যকারিতা তিনটি ছবির ক্ষেত্রে তিন মাসের জন্য স্থগিত করেছেন হাইকোর্ট। যে
বিজ্ঞপ্তির কার্যকারিতা স্থগিত করা ছবি তিনটি হলো ‘আমি নেতা হব’, ‘মামলা হামলা ঝামেলা’ ও ‘কথা দিয়ে কেউ কথা রাখে না’। বর্তমানে ‘আমি নেতা হব’ ছবিটির শুটিং অংশ নিচ্ছেন শাকিব।
বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রদর্শক সমিতির সভাপতি ও সেন্সর বোর্ডের সদস্য ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ বলেন, ‘আমাদের সঙ্গে যেমন চলচ্চিত্র পরিবারের সমস্যা সমাধান হয়েছে, তেমনি শাকিব খানের সঙ্গেও চলচ্চিত্র পরিবারের সমস্যাটা আলোচনার মাধ্যমে সমাধান হতে পারে। যদি না হয়, তাহলে আমরা আমাদের সিদ্ধান্তও বদলাতে বাধ্য হব। হল বন্ধ করে দেব। আমাদের যদি চলচ্চিত্র পরিবারের মধ্যে রাখাই হয়, তাহলে শাকিবকে বাদ নিয়ে নয়।’
সমিতির সাধারণ সম্পাদক কাজী শোয়েব রশীদের মতে, শাকিব ‘সরি’বলে দিলেই সব ঝামেলা চুকে যাবে। এখন শাকিব কী করেন, সেটাই দেখার।

সূত্র: প্রথম আলো

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *