আটক ‘জামায়াত-শিবির’কর্মীদের বিরুদ্ধে মামলা : ১০ দিন করে রিমান্ড আবেদন

badda-police-station-online-dhaka.comরাজধানীর মেরুল বাড্ডার ইসলামিক ইন্টারন্যাশনাল স্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে গ্রেপ্তার হওয়া জামায়াতে ইসলামী ও ছাত্রশিবিরের ১৮ জন নেতা-কর্মীকে ১০ দিন করে রিমান্ডে নেয়ার আবেদন জানিয়েছে পুলিশ।

গতকাল শুক্রবার তাঁদের আটক করা হয়। নাশকতামূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে তাঁদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বাড্ডা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এম এ জলিল। বাড্ডা থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মেহেদী মাকসুদ বাদী হয়ে গতকাল রাত সাড়ে ৮টার দিকে এই মামলা করেন। মামলা নম্বর ১৩। মামলাটি ১৯৭৫ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ১৫(৩) ধারায় করা হয়েছে।

ডিআইটি প্রজেক্টের ৮ নম্বর সড়কের ২৫ নম্বর বাড়িতে রয়েছে ওই স্কুল। বাড্ডা থানার পুলিশ বলেছে, মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে ফাঁসি কার্যকর হওয়া জামায়াতের আমির মতিউর রহমান নিজামীর স্ত্রী শামসুন্নাহার নিজামী ওই স্কুলের অধ্যক্ষ। শামসুন্নাহার নিজেও জামায়াতের নেতা। তিনি দলটির মহিলা বিভাগের সাধারণ সম্পাদক।

পুলিশ জানায়, ইসলামিক ইন্টারন্যাশনাল স্কুলটির দুটি শাখা রয়েছে। একটি গুলশানে, অন্যটি মেরুল বাড্ডায়—অভিযান চালানো সেই স্কুল। দুটি শাখারই অধ্যক্ষ শামসুন্নাহার নিজামী। স্কুলটিতে অভিযান চালানোর সময় তিনি সেখানে ছিলেন না। বাড্ডা থানা শাখা জামায়াতের আমির ফখরুদ্দিন মো. কেফায়েতুল্লাহ স্কুলটির ভাইস প্রিন্সিপাল। তিনিই এ শাখা চালাতেন। তাঁকে ও বাড়ির মালিক বিল্লাল হোসেনসহ ১৮ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

 

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *