অশালীন আর অশ্লীল শব্দে ভরপুর ধারাবাহিক নাটক: নির্বিকার সবাই

Desh TVতির্থক আহসান রুবেল

‘আমেরিকান পাই’র আদলে চ্যানেলে চলেছে ধারাবাহিক নাটক ‘নাইন এ্যন্ড হাফ’। যার মূল ভাবনা, গল্প, সংলাপ, কাহিনীচিত্র ও পরিচালনা করেছিলেন মাবরুর রশিদ বান্নাহ। শুধু তাই না! নাটকটি প্রচার করা হতো রাত সাড়ে দশটায়। অর্থাৎ চ্যানেল কর্তারা জানেন এই ধরণের নাটকের প্রচার সময়টা কখন হলে সুবিধা হতে পারে!

ডায়লগগুলোর আগের পরের শব্দগুলো যুক্ত হলেই ডায়লগগুলোকে সাধু ডায়লগ ছাড়া আর কিছুই মনে হবে না। ঠিক যেমন ‘আমেরিকান পাই’ সিরিজের ব্লু ফিল্মগুলোতে ব্যবহার করা হয়েছে।

ইউটিউব ঘাটতে ঘাটতে হঠাৎ একদিন কিছু কথা সামনে চলে আসলো। ভিডিও ক্লিপের নাম করণ করা হয়েছে অশ্লিল ইঙ্গিত পূর্ণ কথায়। আগ্রহ নিয়েই ক্লিক করলাম। কারণ থাম্বলিন দেখাচ্ছিল বাংলাদেশের পাত্র-পাত্রীদের। অত:পর আবিস্কার করলাম নাটকের ডায়লগকেই মূলত ক্লিপের নামকরণে ব্যবহার করা হয়েছে। খোঁজ নিতে নিতে স্তম্ভিত হবার দশা এবার! কারণ মাননীয় সংস্কৃতি মন্ত্রীর চ্যানেল দেশ টিভিতে দীর্ঘদিন যাবৎ ধারাবাহিকটি চলেছে। এই দীর্ঘ সময়ে মন্ত্রী মহোদয় কিছুই টের পান নি বা জানতে পারেন নি, এটা বাস্তবতা হলে তা আরো ভয়াবহ! তাহলে আপনার কিংবা আমাদের নজরের বাইরে আরো কত কি হচ্ছে!

কয়েকটি ডায়লগ জানাই আগে:
১. কি খাবে?… দুধ … অন্য কিছু?… ঘন দুধ!

২. ম্যডাম আপনার জন্য জোড়া কলা এনেছি!

৩. আপনার জন্য একদম বেছে বেছে বেদানা… টসটসে!

৪. দুজনের মাথা যদি এভাবে লাগিয়ে ভাবাভাবি করি, আমার মনে হয় দাঁড়ায় যাবে!

৫. কি খাবে চা না কফি!… আপনাকে…

৬. ম্যডাম আপনি তো অনেক দিন ধরেই আমার সাথে অনেক কিছু করছেন!

৭. ম্যডাম আপনার ইয়েটা ধরতে চাই!

৮. ওষুধ তো মিস আপনি, Just খাইতে হবে!

৯. তুমি রাতে কি করো! রাতে মেডাম লোশন মেখে…

১০. ম্যডাম লোকটার চোখ এক্সরে মেশিন সে আপনার সব দেখে শুধু আপনাকে দেখে না

১১. আচ্ছা বলো আজ আমরা কোথা থেকে শুরু করবো? … ম্যাম কলা!

১২. এখন খাবেন না?… আমিই তো খাবো! বাসায় তো অন্য কেউ নেই আমাকেই খেতে হবে!… ম্যাম ভাল লাগলো!

১৩. চল শুরু করি অনেক দেরী হয়ে যাচ্ছে… কলা খাওয়ার নাকি পড়াশোনার!

১৪. ওকে আমি তোমাকে বেদানা খুলে দিচ্ছি, তুমি জাস্ট বেদানা খেয়ে চলে যাবা!

১৫. প্রবলেম নেই, আপনার যেদিন ঘর খালি থাকবে আপনি বলবেন আমি চলে আসবো।

১৬. তোমার উচিত ছিল নিজেকে কন্ট্রোল করা!… আপনাকে দেখলে কার কন্ট্রোল হবে ম্যডাম!

১৭. জ্বি ম্যডাম লোশন মাখলে গরম লাগে তো বেশী, এজন্য ঘুমাতে লেট হয়!

এছাড়া ফুলঝাড়ুর হাতলকে বিশেষ অঙ্গের ইঙ্গিতে উপস্থাপন সহ আরো কত কি যে ছিল তা আপনার চ্যানেলের যাচাই-বাছাই কমিটিই জানে।

মাননীয় আসাদুজ্জামান নূর আপনি আজকে মন্ত্রী এবং সংস্কৃতি মন্ত্রী। অর্থাৎ আপনার হাত ধরে রক্ষা পাবে, সুরক্ষিত হবে এবং উজ্জ্বল হবে আমাদের সংস্কৃতি! সেখানে আপনি আপনার টিভি চ্যানেলে মধ্যবিত্তকে বিনোদনের নামে অস্বস্তি আর বিব্রত করার সংস্কৃতি চালিয়ে হয় মা-বাবা নয় ছেলে-মেয়েকে টিভির সামনে থেকে বাথরুমে কিংবা পানি খাবার উছিলায় উঠে যেতে বাধ্য করেছেন! জানি আপনি করেন নি! কারণ মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূরের চেয়ে দেশের সংস্কৃতি অঙ্গনের নূর ভাইকে আমরা অনেক বেশী চিনি। তাই কারা এই কাজটির সাথে জড়িত, তাদের চিহ্নিত করুন।

বাংলাদেশের নাটকের মান আর কোথায় গিয়ে ঠ্যাকলে মাননীয় জ্যাষ্ঠ নাটকের মানুষ, আপনি এবং আপনার প্রজন্ম চিৎকার করে কাঁদবেন! কারা অভিনয় করছে? কারা নির্মাণ করছে? কেমন নির্মাণ করছে? কি দেখাচ্ছে? এসব নিয়ে কি আপনাদের প্রজন্মের কোন ভাবনা নেই! খুব কি বদলে গেছে দেশ, সমাজ, নাট্য ভাবনা, দর্শন! আপনারা কি খুব তুচ্ছ হয়ে গেছেন সময়ের বিবেচনায়! আপনাদের ডাক শোনার কেউ কি নেই! নাকি আপনাদের কথা বলার আগ্রহ নেই! ব্যবসাটাই সব! অর্থের কাছে কি প্রতারিত হবে আমাদের নাটকের ইতিহাস, মান এবং সংস্কৃতি! কি দেখাচ্ছেন প্রতিদিন আপনারা? কেন দেখাচ্ছেন!

আপনারাও যদি মেনে নেন এসব, ভাসেন এই স্রোতে! তবে মিডনাইট বাংলা নাটক সিরিজ শুরু করুন। সবার হাতে মোবাইল আছে, সে মোবাইলে নেট আছে! কাজেই রুমে শুয়ে রাতের আধারে মোবাইলে দেখবে একাকী! স্পন্সরও যেমন জুটবে আর টিআরপি’র কথা কি বলবো! খালি ট্যাকা আর ট্যাকা ভাসবে!

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *