ইসলামিক স্টেট দমনের পরিকল্পনা ঘোষণা করলেন ট্রাম্প

160815123254_trump-reutersঅভিবাসনের ক্ষেত্রে ‘কঠোর বাছাই প্রক্রিয়া’-র কথা বলছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প তার ভাষায়, উগ্র ইসলামী সন্ত্রাসবাদকে পরাজিত করার একটি পরিকল্পনা ঘোষণা করেছেন।

ওহায়োতে দেয়া বক্তব্যে অভিবাসীদের জন্য কঠোর বাছাই প্রক্রিয়া প্রণয়নেরও প্রতিশ্রুতি দেন ট্রাম্প। বৈদেশিক নীতিবিষয়ক গুরুত্বপূর্ণ বক্তব্যে ট্রাম্প বলেন, প্রেসিডেন্ট ওবামা এবং ডেমোক্র্যাট দলের প্রেসিডেন্টপ্রার্থী হিলারি ক্লিনটনের নীতির সরাসরি ফল হিসেবেই জিহাদিদের উত্থান হয়েছে।

তিনি বলেন, ইসলামিক স্টেটকে পরাজিত করতে চায় এমন যেকোন দেশের সাথে তিনি কাজ করতে চান।
তার পরিকল্পনার মধ্যে রয়েছে সন্ত্রাসবাদের সাথে যুক্ত আছে এমন দেশ থেকে ভিসা দেয়া বন্ধ করা এবং যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসের আবেদনকারীদের জন্য আদর্শগত একটি পরীক্ষা।

ট্রাম্প বলেন, মার্কিন মূল্যবোধে বিশ্বাস করে এবং সেখানকার মানুষকে সম্মান করে শুধুমাত্র এমন ব্যক্তিদেরই যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করতে দেয়া উচিত।

এদিকে মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেছেন, বৈদেশিক নীতির বিষয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্পের কোন ধারণাই নেই।

হিলারি ক্লিনটনের প্রচারণায় এক সমাবেশে মি. বাইডেন বলেন, রিপাবলিকান প্রার্থীর উদ্ভট মন্তব্যের কারণে যুক্তরাষ্ট্র এরই মধ্যে আগের চেয়ে কম নিরাপদ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ট্রাম্পকে তিনি প্রেসিডেন্ট হবার অযোগ্য হিসেবে বর্ণনা করে বলেন, তার বৈদেশিক নীতি বিষয়ে কোন অভিজ্ঞতা নেই এবং আন্তর্জাতিক চ্যালেঞ্জ সম্পর্কে জানার আগ্রহও নেই।

এর আগে এক বক্তব্যে প্রেসিডেন্ট ওবামা এবং হিলারি ক্লিনটনকে আইএসের ‘প্রতিষ্ঠাতা’ হিসেবে বর্ণনা করায় ট্রাম্পকে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়তে হয়।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *