র‍্যাব-পুলিশের সাথে ‌‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিনজন নিহত

arms-ft-plc-asamiরাজধানী, খুলনা এবং ঝিনাইদহে র‍্যাব-পুলিশের সাথে ‌পৃথক ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তিনজন নিহত হয়েছে। র‍্যাবের পক্ষ থেকে গণমাধ্যমে পাঠানো মোবাইল খুদে বার্তায় জানানো হয়েছে, আজ শুক্রবার ভোররাতে কদমতলী থানা এলাকায় তাদের সাথে বন্দুকযুদ্ধে এক ব্যাক্তি নিহত হয়েছেন। তার পরিচয় এখনো জানতে পারেনি র‍্যাব। র‍্যাবের দাবি, নিহত ওই ব্যক্তি মাদক ব্যবসায়ী। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র, গুলি ও মাদকদ্রব্য উদ্ধারের দাবি করেছে র‍্যাব।

এদিকে, ভোর সাড়ে চারটার দিকে খুলনার কয়রা উপজেলার খড়খড়িয়া নদীর দক্ষিণ পাশে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ আনারুল ইসলাম (৪৫) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন।

কয়রা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শমসের আলীর ভাষ্য, আনারুল ১০টি মামলার আসামি। এর মধ্যে ছয়টি ডাকাতি, একটি হত্যা, একটি অস্ত্র ও দুটি ডাকাতির প্রস্তুতির মামলা। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে বলে পুলিশ জানায়।

এছাড়া, ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডু উপজেলার ফলশী গ্রামের মাঠে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন- র‍্যাবের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ শহীদুল ইসলাম (৪৩) নামের এক ব্যক্তি নিহত হয়েছেন। গতকাল বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত দেড়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে । নিহত শহীদুল ইসলামের বাড়ি উপজেলার পারদখলপুর গ্রামে। তাঁর বাবার নাম তোরাব আলী।

র‍্যাবের ভাষ্য, বন্দুকযুদ্ধের পর ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শুটার গান ও দুটি গুলি উদ্ধার করা হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন র‍্যাবের দুই সদস্য।

ঝিনাইদহ র‌্যাব ক্যাম্পের ডিউটি অফিসার সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) ওমর ফারুক জানান, গতকাল রাতে একদল দুর্বৃত্ত ফলশী মাঠে অবস্থান করছে জানতে পেরে র‌্যাবের টহল দল সেখানে যায়। ওই সময় বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। বন্দুকযুদ্ধের পর অন্যরা পালিয়ে যায়। শহীদুলকে পড়ে থাকতে দেখা যায়। সেখান থেকে তাঁকে উদ্ধার করে হরিণাকুণ্ডু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *