হিলারি শয়তান: ট্রাম্প

Hillary-Trumpমার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রিপাবলিকান দলের মনোনয়ন প্রত্যাশার লড়াইয়ের শুরু থেকেই একের পর এক বিতর্কিত মন্তব্য করে যাচ্ছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এসব মন্তব্যের কারণে বারবার সমালোচনার মুখোমুখি পড়তে হয়েছে। দলীয় মনোনয়ন নিশ্চিত হওয়ার পরও তা অব্যাহত রয়েছে। দলের কনভেনশনে বক্তব্য দেওয়া ইরাকে নিহত মুসলিম-আমেরিকান সেনা কর্মকর্তার বাবা-মাকে নিয়ে করা বিতর্কিত মন্তব্যের জের কাটতে না কাটতে আবারও মন্তব্য করে বসলেন ট্রাম্প। এবার প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে তার প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী ডেমোক্রেট দলের প্রার্থী হিলারি ক্লিনটনকে শয়তান হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। এ মন্তব্যের পর নিজের রিপাবলিকান দলেই ট্রাম্পের সমালোচনা শুরু হয়েছে।

সোমবার পেনসিলভানিয়াতে এক র‌্যালিতে বার্নি স্যান্ডারসকে আক্রমণ করেন ট্রাম্প। হিলারিকে সমর্থন দেয়ায় এ আক্রমণ করেন ট্রাম্প। এ সময় ট্রাম্প বলেন, স্যান্ডার্স শয়তানের সঙ্গে চুক্তি করেছেন। হিলারি শয়তান।

এর আগে রাশিয়ার নীতির প্রতি ডোনাল্ড ট্রাম্পের ‘পূর্ণ আনুগত্যের’ কঠোর সমালোচনা করেন হিলারি ক্লিনটন। তিনি বলেন, এর ফলে ‘জাতীয় নিরাপত্তা নিয়ে’ প্রশ্ন উঠেছে। ট্রাম্পের স্বভাব নিয়ে নতুন করে সন্দেহ দেখা দিয়েছে। এবিসি টেলিভিশনকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব কথা বলেন হিলারি ক্লিনটন।

হিলারির বক্তব্য অবশ্য প্রত্যাখ্যান করেছেন তার প্রতিদ্বন্দ্বী ডোনাল্ড ট্রাম্প। তিনি বলেন, রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে তার কোনও ‘সম্পর্ক’ নেই। তিনি কখনো তার সঙ্গে দেখা করেননি বা টেলিফোনেও কথা বলেননি।

ট্রাম্প অবশ্য বলেছেন, ‘আমাদের দেশ যদি রাশিয়ার সঙ্গে চলে সেটা হবে একটা বিরাট ব্যাপার।’

এবিসি টেলিভিশনকে ট্রাম্প বলেন, পুতিন যদি তাকে ‘প্রতিভাবান’ বলে প্রশংসা করেন তাহলে তিনি তা অস্বীকার করবেন না।

এর আগে ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হিসেবে ক্রিমিয়ার ওপর রাশিয়ার সার্বভৌমত্ব স্বীকার করার বিষয়টি অন্তত বিবেচনা করবেন বলে এ বিষয়ে বিতর্কের জন্ম দেন।

এদিকে, রিপাবলিকান ও ডেমোক্রেট উভয় দল থেকেই নিহত মুসলিম-আমেরিকান সেনার বাবা-মাকে নিয়ে মন্তব্যের সমালোচনা করা হয়েছে।

সর্বশেষ আরেক মার্কিন ধনকুবের ওয়ারেন বাফেট চ্যালেঞ্জ করেছে ট্রাম্প আয়কর দাখিলের নথিপত্র দেখাতে পারবেন না বলে। জবাবে ট্রাম্প বলেছেন, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ অডিট শেষ করা না পর্যন্ত তা প্রকাশ করা যাবে না। তবে ট্রাম্পের এ অবস্থান খারিজ করে বাফেট বলেছেন, এ ধরনের কোনও নিয়ম নেই। হিলারির পক্ষে প্রচারণা চালাচ্ছেন বাফেট।

সূত্র: সিএনএন।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *