ঢাকাই সিনেমা কাঁপাতে চান আইরিন

Airin Bhaliwoodর‌্যাম্প মডেলিং থেকে চলচ্চিত্রে পথচলা আইরিনের। দেবাশীষ বিশ্বাসের ‘ভালোবাসা জিন্দাবাদ’ দিয়ে ঢালিউডে অভিষেক ঘটে তার।

এরপর ‘ইউটার্ন’ ও ‘ছেলেটি আবোল তাবোল মেয়েটি পাগল পাগল’ ছবিগুলো তাকে কিছুটা আলোচনায় রাখে। মাঝে আরও বেশ কয়েকটি ছবিতে অভিনয় করেছেন। তবে গেল ৯ মাসে তার কোনো ছবি মুক্তি পায়নি।

অবশেষে দীর্ঘদিন পর আবারও পর্দায় আসছেন এ নায়িকা। এসএ হক অলীকের ‘এক পৃথিবী প্রেম’ ছবির মধ্য দিয়ে আবারও দর্শকরা এই গ্ল্যামার গার্লকে পর্দায় দেখতে পাবেন। ছবিটি মুক্তি পাবে ১২ আগস্ট।

এ প্রসঙ্গে আইরিন বলেন, ‘এই ছবিটি নিয়ে আমি আশাবাদী। আমার বিশ্বাস, আইরিনের এ ছবিটি দর্শকরা ভালোভাবেই গ্রহণ করবেন।’

আইরিন বলেন, ‘অনেকেরই ধারণা, র‌্যাম্পের মেয়েরা অভিনয় সেভাবে জানে না। আমি তাঁদের ধারণা পাল্টাতে চাই। দেখাতে চাই, আমরাও পারি।’

ঢাকাই সিনেমাকে দর্শকপ্রিয় করতে যা যা করা দরকার সব করবেন বলেও তিনি বলেন।

পরিচালক সূত্রে জানা যায়, বৃদ্ধাশ্রমে বসবাসকারী প্রবীণদের জীবনযাপন নিয়ে ছবির গল্প তৈরি হয়েছে। পাশাপাশি রয়েছে নতুন প্রজন্মের প্রেম-ভালোবাসার সম্পর্ক।

চলচ্চিত্র অভিনেত্রী আইরিন মিডিয়ায় তার যাত্রা শুরু করেন র‌্যাম্প মডেলিং এর মাধ্যমে। ২০০৮ সালে ইউ গট দ্য লুক প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে ‘বেস্ট স্মাইল’ পদবী জয় করেন এবং মিডিয়ায় যাত্রা শুরু করেন তিনি। র‌্যাম্প মডেলিং এ খুব অল্প সময়েই জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। অভিনয়ের প্রতি আগ্রহ ছিল বলে সময় নিয়ে যত্ন করে প্রস্তুতি নিয়েছেন, নাচ শিখেছেন এবং তারপর অভিনয় শুরু করেন।

আশুতোষ সুজন পরিচালিত ‘ম্যানপাওয়ার’ তার অভিনীত প্রথম প্রচারিত নাটক। এছাড়া অভিনয় করেছেন আফসানা মিমি পরিচালিত ধারাবাহিক নাটক ‘পৌষ ফাগুনের পালা’, তানভীর হোসেন প্রবাল পরিচালিত ‘তবুও সংশয়’, আশুতোষ সুজন পরিচালিত ‘জলছবি’ ইত্যাদি।

এছাড়া বিভিন্ন টিভি বিজ্ঞাপনেরও মডেল হয়েছেন আইরিন। ‘রবি’র তোমাকে দিয়ে কিছু হবে না’, ‘প্রাণ ডাল’, ‘জেনোসিস রিয়েল এস্টেট’, ‘আখতার ফার্নিচার’ এর মধ্যে অন্যতম।

আইরিনের বাবা মতিয়ার রহমান একজন ব্যবসায়ী এবং মা শামসুন্নাহার গৃহিনী। পরিবারে তিন ভাইবোনের মধ্যে আইরিন সবার ছোট। আইরিন পড়াশোনা করেছেন নর্দান ইউনিভার্সিটিতে, অ্যাকাউন্টিং বিষয়ে বিবিএ। র‌্যাম্প মডেলিং এ টপ হওয়ার আগ্রহের পাশাপাশি ভালো চলচ্চিত্রে অভিনয় করে প্রতিষ্ঠিত হওয়ার লক্ষ্যে কাজ করছেন আইরিন।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *