শোকে, আতঙ্কে স্তম্ভিত তারাও

star---gulshanরাজধানীর গুলশানে সন্ত্রাসী হামলা ও প্রাণহানীর ঘটনায় সারাদেশের মানুষ উদ্বিগ্ন। উদ্বিগ্ন সংস্কৃতি অঙ্গনের প্রতিটি মানুষ। ধর্মের নামে মানুষ হত্যা মানতে পারছেন না কেউই। শোকে, আতঙ্কে স্তম্ভিত তারাও।

সারারাত জিম্মি দেশি-বিদেশী নাগরিকদের নিরাপদ মুক্তির প্রতীক্ষায় রাত কেটেছে তাদের। কিন্তু ফল মেলেনি। হামলায় প্রাণ হারিয়েছেন ২০জন মানুষ। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে সে শোকের ঢেউ।

নিন্দা এবং সমবেদনা জানিয়েছেন- সুবর্ণা মোস্তফা, মোস্তফা সরয়ার ফারুকী, মাসুদ হাসান উজ্জ্বল, মেহের আফরোজ শাওন, রুবাইয়াৎ হোসেন, রেদওয়ান রনি, নওশিন নাহরিন মউ, জাকিয়া বারি মম, জ্যোতিকা জ্যোতি, আমব্রীন, শামিমা তুষ্টি ও ঈষিকা খান প্রমুখ।

উল্লেখ্য, গতকাল শুক্রবার সন্ধ্যার পর গুলশান ২ এর ৭৯ নম্বর সড়কে ৫নং বাসার দ্বিতীয় তলায় হলি আর্টিসান রেস্টুরেন্টে হামলা চালায় কয়েকজন অস্ত্রধারী। রেস্টুরেন্টে প্রবেশের সময় তারা বেশ কয়েকটি বিস্ফোরণ ঘটায় এবং গুলি চালায়। এসময় পুলিশের সঙ্গে গুলিবিনিময় হয়। তখনই গুলিবিদ্ধ হয়ে গুরুতর আহত হন বনানী থানার ওসি সালাউদ্দিন, ডিবির এসি রবিউল ইসলাম, পুলিশের দুই কনস্টেবল, একজন মাইক্রোবাসচালকসহ ২০ জনের বেশি। গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালে মারা গেছেন ওসি সালাউদ্দিন এবং এসি রবিউল।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *