নায়ক রিয়াজের খাবার হোটেল কেমন চলছে?

Riaz Hotelরাজধানীর বসুন্ধরা আবাসিক এলাকায় চিত্রনায়ক রিয়াজের রেস্টুরেন্ট ‘ফুড টোয়েন্টিফোর ডট সেভেন’। ইফতার ও সেহরিতে ভালোই চলছে ব্যবসা, জানালেন রিয়াজ নিজেই। তিনি নিজেই শুটিংয়ের ফাঁকে সময় পেলে চলে আসছেন, খবর নিচ্ছেন ক্রেতাদের।

প্রশ্ন : রমজানে কেমন চলছে খাবারের ব্যবসা?
উত্তর : সামনে ঈদ, মাসজুড়েই কোনো না কোনো শুটিং নিয়ে ব্যস্ততার মধ্যে সময় কাটছে। এর ফাঁকে ফাঁকে খবর রাখছি। সময় পেলেই চলে যাচ্ছি। রমজানের জন্য আমাদের স্পেশাল কিছু আইটেম করেছি। সেহরি ও ইফতারটা আমাদের অনেক ভালো যাচ্ছে। সেহরিতে অনেক লোক আসছে, ফুল হচ্ছে প্রতিদিনই। খাচ্ছে, অনেকেই নিয়ে যাচ্ছে। আমার কাছে ভালো লাগছে যে সবাই এনজয় করতে পারছে।

প্রশ্ন : সেহরিতে স্পেশাল কী থাকছে?
উত্তর : সেহরিতে আমরা বাংলা খাবার যুক্ত করেছি। বাংলা খাবারটা আমাদের ছিল না। আমাদের ছিল থাই চায়নিজ খাবার। রোজার জন্যই বাংলা খাবার যুক্ত করা হয়েছে। রান্নাটাও একেবারেই সাধারণভাবে করা হচ্ছে। খুব বেশি মসলাযুক্ত খাবার আমরা দিচ্ছি না।

প্রশ্ন : আর ইফতারে?
উত্তর : ইফতারে আমাদের ৪২টি আইটেম আছে। এর মধ্যে আমাদের নিজস্ব কিছু আইটেম আছে। বিকেল থেকেই ভিড় থাকে, অনেকেই খাবার কিনে নিয়ে যান। আবার বসে খাচ্ছেন অনেক মানুষ। এখানে খাবারের সার্বিক দায়িত্বে থাকছেন শেফ টনি খান। এটাও ভোজনরসিকদের জন্য একটা বড় খবর। আমরা স্বাস্থ্যসম্মত খাবার রাখছি।

দামও থাকছে সবার আয়ত্তের মধ্যে। হোম ডেলিভারিসহ স্বাস্থ্যসম্মত খাবারের ব্যবস্থা থাকছে। ভোজনরসিকদের জন্য প্রতিদিনই নিত্যনতুন স্বাদের রেসিপি থাকবে এবং গ্রাহকরা সব খাবার অনলাইনেও অর্ডার দিচ্ছেন।

প্রশ্ন : ঈদের সময় কি খোলা থাকবে?
উত্তর : ঈদের সময়টা আমরা বন্ধ রাখছি। কারণ, খাবারের হোটেল খোলার পর আর এটা বন্ধ হয়নি। আর যেহেতু আমরা ২৪ ঘণ্টা খোলা রাখি, বন্ধ করার কোনো উপায়ই নেই। ঈদের সময়টা আমরা সাত দিনের জন্য বন্ধ রেখে আবারও চালু করব। এর মধ্যে পুরো রেস্টুরেন্টটা পরিষ্কার করতে চাই।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *