340251

রাস্তায় পড়ে জীবন গেল, এগিয়ে এলো না কেউ

সিলেট সিভিল সার্জন কার্যালয় মসজিদের মুয়াজ্জিন মাওলানা সুলতান আহমদ (৫০) আজ রোববার জোহরের আজানের পর হঠাৎ অসুস্থ হয়ে রাস্তায় পড়ে যান। দুপুর দেড়টা পর্যন্ত রাস্তায় পড়ে থাকলেও করোনাভাইরাস আক্রান্ত সন্দেহে তার সাহায্যে এগিয়ে আসেনি কেউ। সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সামনের রাস্তায় দীর্ঘক্ষণ পড়ে থেকে আজ দুপুরে মা’রা যান তিনি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, আজ দুপুরে সিলেট সিভিল সার্জন কার্যালয়ের সামনে ছিল শত শত মানুষের লাইন। বিদেশ গমনেচ্ছুদের করোনা পরীক্ষার রেজিস্ট্রেশন চলছিল সেখানে। এ সময় তাদের অদূরে কার্যালয়ের সামনের রাস্তায় পড়ে ছিলেন সিলেট সিভিল সার্জন কার্যালয় মসজিদের মুয়াজ্জিন মাওলানা সুলতান আহমদ।

জোহরের আজানের পর হঠাৎ অসুস্থ হয়ে রাস্তায় পড়ে গেলে আশপাশের লোকজনকে ডেকেছিলেন কয়েকবার। কিন্তু করোনায় আক্রান্ত সন্দেহে কেউ এগিয়ে আসেননি। বিষয়টি শুরুতে আমলে নেননি সিভিল সার্জন কার্যালয়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীরাও।

প্রায় ঘণ্টাখানেক পর সিভিল সার্জন কার্যালয়ের নিরাপত্তাকর্মী সুশীল মোহন্ত কয়েকজনের সহায়তায় তাকে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। সিএনজি অটোরিকশায় করে হাসপাতালে ওসমানী হাসপাতালে নেওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন মাওলানা সুলতান আহমদ।

জানা যায়, প্রায় ২০-২২ বছর ধরে মাওলানা সুলতান মসজিদের মুয়াজ্জিন হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি দীর্ঘদিন ধরে উচ্চ রক্তচাপ রোগে ভুগছিলেন। দুই ছেলে ও এক মেয়ে সন্তানের জনক মাওলানা সুলতানের বাড়ি নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলায়। তিনি সিভিল সার্জন কার্যালয়ের কোয়ার্টারে থাকতেন আর পরিবারের সদস্যরা থাকেন নেত্রকোনায়।

এ বিষয়ে সিলেটের সিভিল সার্জন প্রেমানন্দ মন্ডল বলেন, ‘তিনি রাস্তায় পড়ে গিয়েছিলেন। বিষয়টি আমাদের নজরে আসার সঙ্গে সঙ্গে তাকে হাসপাতালে পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়।’

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *