306045

সিঁড়িতেই ক্লাস নিলেন ঢাবির সেই শিক্ষক

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাবি) প্রশাসনের সিদ্ধান্তকে অবৈধ আখ্যায়িত করে আদালতের রায়ের পরও ক্লাসে ফিরতে না পেরে প্রতিবাদের অংশ হিসেবে অবশেষে সিঁড়িতেই ক্লাস নিলেন অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. রুশাদ ফরিদী।

আজ রোববার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের সিঁড়িতে এক ঘন্টাব্যাপী ‘পরিসংখ্যানের প্রথম পাঠ’ বিষয়ে ক্লাস নেন তিনি। এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন।

ছাত্র ইউনিয়নের উদ্যোগে এই ক্লাসের আয়োজন করা হয়েছে বলে জানা গেছে। এর আগে গতকাল শনিবার ফেসবুকে নিজের টাইমলাইনে এক ইভেন্ট পোস্টে সিঁড়িতে ক্লাস নেওয়ার বিষয়টি জানান ড. রুশাদ ফরিদী। সেখানে তিনি লেখেন, ‘ক্লাসে ফিরতে না পারলেও ক্লাসের বাইরে সিঁড়িতে ফিরতে পেরে ভালো লাগছে। উদ্যোগী ছাত্রদের অনেক ধন্যবাদ।’

ক্লাসে অংশ নেওয়া ফারিহাল নামের এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘আজকে মাত্র ক্লাস শুরু হয়েছে। ক্লাস ভালো লেগেছে। স্যার অনেক ভালো ক্লাস নিলেন। পরিসংখ্যান সম্পর্কে অনেকের ধারণা স্পষ্ট হলো।’

ক্লাস নেওয়ার বিষয়ে ড. রুশাদ ফরিদী বলেন, ‘ক্লাস নেওয়ার প্রস্তাব আসলে আমার ছাত্রদের পক্ষ থেকে এসেছে। আমাকে একটা ক্লাস নিতে দেওয়া হচ্ছে না, যার কারণে আমাকে সিঁড়িতেই ক্লাস নিতে হলো। শিক্ষার্থীরা যদি চায়, তাহলে এ ধারা অব্যাহত থাকবে। প্রতিবাদ স্বরূপ হলেও সিরিয়াস ক্লাস নেওয়া হবে। এটা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতি প্রতিবাদ স্বরূপ।’

এর আগে ক্লাসে ফিরতে উচ্চ আদালতের নির্দেশনা থাকলেও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের অসহযোগিতায় বাধ্যতামূলক ছুটিতে থাকা ঢাবির অর্থনীতি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ড. রুশাদ ফরিদী অ্যাকাডেমিক কার্যক্রমে অংশ গ্রহণ করতে পারছেন না বলে অভিযোগ করেন। ক্লাসে ফিরতে চেয়ে গত মঙ্গল, বুধ ও বৃহস্পতিবার তিনি বিভাগের চেয়ারম্যানের কক্ষের সামনে অবস্থান নেন। এ সময় তিনি ‘আমি শিক্ষক আমাকে ক্লাসে ফিরে যেতে দিন’ লেখা সংবলিত প্ল্যাকার্ড প্রদর্শন করেন।

প্রসঙ্গত, ২০১৭ সালের ১২ জুলাই বিশ্ববিদ্যালয়ের তৎকালীন উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের সভাপতিত্বে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিন্ডিকেট সভায় ড. রুশাদ ফরিদীকে বাধ্যতামূলক ছুটিতে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এর এক সপ্তাহ পর ১৯ জুলাই এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে রিট করেন তিনি।

চলতি বছরের ২৫ আগস্ট বাধ্যতামূলক ছুটির বিষয়টি অবৈধ ঘোষণা করেন হাইকোর্ট। তা সত্ত্বেও বিভাগে ফিরতে না পেরে গত চার দিন থেকে প্রতিবাদ জানিয়ে আসছেন এই শিক্ষক। এই প্রতিবাদের অংশ হিসেবেই এবার সিঁড়িতে শিক্ষার্থীদের ক্লাস নিচ্ছেন তিনি।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *