193264

চলুন দেখে আসি নায়িকা শবনম বুবলির বাড়ির অন্দর মহলের দৃশ্য (ভিডিও)

চলুন দেখে আসি নায়িকা শবনম বুবলির বাড়ির অন্দর মহলের দৃশ্য (ভিডিও)

চলুন দেখে আসি নায়িকা শবনম বুবলির বাড়ির অন্দর মহলের দৃশ্য (ভিডিও)

চলুন দেখে আসি নায়িকা শবনম বুবলির বাড়ির অন্দর মহলের দৃশ্য (ভিডিও)

 

অন্যরা যা পড়ছেন….

বিশ্বজুড়ে তোলপাড় সৌদি মেয়েদের নাচ নিয়ে (ভিডিও)

সৌদি আরবে মেয়েরা পুরুষদের দ্বারা যে কতটা নিপীড়নের মধ্যে আছে তা নিয়ে এক পপ গানের ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় হৈচৈ ফেলে দিয়েছে। লক্ষ লক্ষ মানুষ ইউটিউবে ভিডিওটি দেখেছেন। ভিডিওটির নাম হচ্ছে ‘হওয়াজেস’ যার অর্থ অনেকেটা ‘উদ্বেগে’র কাছাকাছি। এতে দেখা যাচ্ছে, বোরকা পরা সৌদি মেয়েরা গান গাইতে গাইতে নাচছে, বাস্স্কেট বল খেলছে, স্কেটবোর্ডে ঘুরছে।

তাদের গানের একটি কলি হচ্ছে, ‘আল্লাহ যদি পুরুষদের কাছ থেকে আমাদের রেহাই দিতো।’ একটি মিডিয়া প্রোডাকশান কোম্পানি ‘এইট আইইএস’ এই ভিডিওটি ছেড়েছে। গত ডিসেম্বরে এটি ইউটিউবে আপলোড করার পর তিরিশ লাখের বেশিবার এটি দেখা হয়েছে।সৌদি আরবে পুরুষদের কর্তৃত্বপরায়ণ শাসনের মধ্যে মেয়েরা যে কতটা হাঁপিয়ে উঠেছে সেটাই তুলে ধরা হয়েছে এই ভিডিওটিতে। সৌদি আরবে মেয়েরা কী করতে পারবে এবং পারবে না, তার সব কিছু নির্ধারিত হয় রাষ্ট্র এবং পরিবারের আরোপ করা কঠোর ইসলামী অনুশাসনের মাধ্যমে।

মেয়েরা বিদেশ ভ্রমণে যেতে পারবে কিনা, উচ্চ শিক্ষা নিতে পারবে কিনা, এরকম সব কিছুতে তাদের পুরুষ অভিভাবকের অনুমতি নিতে হয়। সেখানে মেয়েদের কোন পুরুষ সঙ্গী ছাড়া বাইরে যাওয়া নিষেধ, এমনকি মেয়েদের গাড়ি চালানো নিষেধ।ইউটিউবে ভিডিওটি দেখে একজন মন্তব্য করেছেন, “এই ভিডিও ক্লিপটি অবিশ্বাস্য! এদের কন্ঠ এত খারাপ এবং এর বিষয়বস্তু এত খারাপ! কল্পনা করুন তো মেয়েরা গাড়ি চালাচ্ছে আর পুরুষরা এভাবে পোশাক পড়ছে, নাচছে। আল্লাহ আমাদের রক্ষা করো।”তবে আরেকজন এটির প্রশংসা করে লিখেছেন, “এই ভিডিওটি খুবই সুন্দর। মেয়েরা যে কত ধরণের নিপীড়নের শিকার হয় এটিতে কমেডির মাধ্যমে তুলে ধরা হয়েছে।”

তৃতীয় আরেকজনের মন্তব্য হচ্ছে, “বিদেশি সংবাদপত্রগুলোতে এই ভিডিও নিয়ে আলোচনা চলছে। সৌদি আরবেও যে সৃষ্টিশীল প্রতিভাবান মানুষ আছে, সেটা সারা বিশ্বকে জানানো উচিত। সৌদি আরব কেবল ধর্মীয় পুলিশ, ইসলামিক স্টেট আর বুদ্ধি প্রতিবন্ধীদের জায়গা নয়।” সৌদি আরবে মেয়েদের অধিকার এবং স্বাধীনতাকে যেভাবে খর্ব করা হয়, এই ভিডিও তা নিয়ে নতুন বিতর্ক উস্কে দিয়েছে। এর আগে ২০১৩ সালে একজন সৌদি কমেডিয়ান ‘নো ওমেন, নো ড্রাইভ’ নামে একটি ভিডিও আপলোড করে সাড়া ফেলে দিয়েছিলেন, যাতে সৌদি আরবে যে মেয়েদের গাড়ি চালাতে দেয়া হয় না, তার প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছিল।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *