192636

সংগীতশিল্পী শাম্মী আক্তার আর নেই

বিনোদন ডেস্ক: ‘ঐ রাত ডাকে ঐ চাঁদ ডাকে’খ্যাত নন্দিত সংগীতশিল্পী শাম্মী আক্তার আর নেই। ইন্নালিল্লাহি ওয়া….রাজিউন! মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৬২ বছর। দীর্ঘদিন ধরেই তিনি মরনব্যাধি ক্যান্সারে ভুগছিলেন। আজ মঙ্গলবার, ১৬ জানুয়ারি তার শরীর হঠাৎ বেশি খারাপ হলে হাসপাতালের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়ার পথেই তার মৃত্যু হয়।

পরে তার মরদেহ শান্তিনগরে তার নিজ বাসাতেই নিয়ে যাওয়া হয়। গুণী এই শিল্পীর মৃত্যুর খবরে সংগীতাঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

তার স্বামী সংগীতশিল্পী আকরামুল ইসলাম জানান, ‘শাম্মী আক্তার ছয় বছর ধরে ব্রেস্ট ক্যানসারে ভুগছিলেন। আজ দুপুরে বেশি অসুস্থ হয়ে পড়ায় বারডেম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। হাসপাতালে পৌঁছানোর আগেই বিকেল ৪টার দিকে তিনি পরপারে পাড়ি জমান। জীবনের শেষদিনগুলো অনেক কষ্ট করে গেল শাম্মী। সবার কাছে ওর বিদেহি আত্মার জন্য দোয়া প্রার্থনা করছি।’

‘শাম্মী’ নামে পরিচিত হলেও তার আসল নাম শামীমা আক্তার। শামীমাকেই আদর করে সবাই ডাকতেন শাম্মী বলে। তার গানে হাতে খড়ি বরিশালের ওস্তাদ গৌর বাবুর কাছে। এরপর নানা সময় নানা জনের কাছে গানে শিক্ষা নিয়েছেন তিনি। ১৯৭০ সালের দিকে জীবনের প্রথম বেতারের গানে কণ্ঠ দেন তিনি। গানটি ছিল নজরুলসংগীত ‘এ কি অপরূপ রূপে মা তোমায়’।

চলচ্চিত্রের গানে শাম্মী আক্তারের যাত্রা শুরু হয়েছিলো ১৯৮০ সালে আজিজুর রহমান পরিচালিত ‘অশিক্ষিত’ চলচ্চিত্রে গান গাওয়ার মধ্য দিয়ে। ছবিতে গাজী মাজহারুল আনোয়ারের লেখা ও সত্য সাহার সুর-সংগীতে ‘আমি যেমন আছি তেমন রব বউ হবো না রে’ এবং ‘ঢাকা শহর আইসা আমার আশা পুরাইছে’ গান দুটি গেয়েই রাজকীয় অভিষেক হয় তার। এরপর চলচ্চিত্রে শাম্মী আখতার প্রায় ৩০০ গান গেয়েছেন।

জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ‘ভালোবাসলেই ঘর বাঁধা যায় না’ চলচ্চিত্রে ‘ভালোবাসলেই সবার সঙ্গে ঘর বাঁধা যায় না’ গানটি গাওয়ার জন্য শাম্মী আক্তার ২০১০ সালের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার অর্জন করেন।

দীর্ঘ ছয় বছর ধরেই ক্যান্সারের সঙ্গে যুদ্ধ করছিলেন তিনি। গত বছর তার চিকিৎসার জন্য প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিল থেকে ৫ লাখ টাকা প্রদান করা হয়েছিলো। শেষরক্ষা হলো না কিছুতেই। সংগীতাঙ্গনকে শোকের সমুদ্রে ভাসিয়ে চলে গেলেন এই গানের পাখি, আর না ফেরার দেশে।

ব্যক্তিজীবনে ১৯৭৭ সালের ২২ ফ্রেব্রুয়ারি আকরামুল ইসলামের সঙ্গে বিয়েবন্ধনে আবদ্ধ হন শাম্মী আক্তার। তাদের দুই সন্তান কমল ও সাজিয়া। শেষ বয়সে দুই নাতি আর্শ ও আরিবের সঙ্গেই সময় কাটতো শাম্মী আক্তারের।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *