191905

নতুন নায়কের সঙ্গে বুবলী

একসময় টেলভিশনে সংবাদ পাঠ করতেন শবনম ইয়াসমীন বুবলী। কখনো ভাবেননি রুপালি জগতের বাসিন্দা হবেন। কিন্তু এখন তিনি এই জগতের একজন। প্রথম সিনেমায় নায়ক হিসেবে পাশে পেয়েছেন শাকিব খানকে। পরিবারের নিষেধাজ্ঞার মুখোমুখি হয়েছেন। সবকিছু ম্যানেজ করে প্রথম সিনেমা ‘বসগিরি’তে দর্শকের কাছে আলোচিত হন বুবলী। নাচ আর অভিনয়শৈলী দিয়ে দর্শকদের নজর কাড়তে সক্ষম হন।

এ পর্যন্ত বুবলী যে সিনেমাগুলোতে কাজ করেছেন, সব কটিতে তাঁর নায়ক শাকিব খান। এখন পর্যন্ত তাঁর যে কয়টি সিনেমা মুক্তি পাওয়ার কথা শোনা যাচ্ছে, এসব ছবিতে তাঁর নায়ক শাকিব খান। বছর শেষে শোনা গেছে, নতুন বছর শাকিব নয়, অন্য কোনো নায়কের সঙ্গে দেখা যেতে পারে বুবলীকে। সবকিছু জানার জন্য অপেক্ষা করতে হবে।

অন্যরা যা পড়ছেন….

কী ঘটাবেন শাকিব খান?
পারিবারিক এবং পেশাগত, দুই কারণে গত বছর বিতর্কের মুখোমুখি হন শাকিব খান। শুরুতে কিছুটা ঝামেলা হলেও পরে নিজেকে সামলে নেন। সবকিছু পাশ কাটিয়ে শাকিব কাজে মনোযোগ দেন। কিছু মন্তব্যের কারণে বছরের মাঝামাঝি চলচ্চিত্রের বিভিন্ন সংগঠন তাঁর বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়। নিষিদ্ধ করা হয় তাঁকে। তারপরও সারা বছর দেশের চলচ্চিত্র ছিল শাকিবময়।

পুরো বছর তাঁর পাঁচটি সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। ছবিগুলোর মধ্যে আছে ‘সত্তা’, ‘নবাব’, ‘রাজনীতি’, ‘রংবাজ’ ও ‘অহংকার’। সারা বছর যে অর্ধশত সিনেমা মুক্তি পেয়েছে, তার মধ্যে ‘নবাব’ সবচেয়ে ব্যবসাসফল সিনেমা। বুলবুল বিশ্বাসের ‘রাজনীতি’র জন্যও শাকিব প্রশংসিত হন।

নতুন বছর শাকিবের কয়েকটি সিনেমা মুক্তির অপেক্ষায় আছে। নতুন কাজ শুরু করবেন, এমন সিনেমার সংখ্যাও কম না। এর মধ্যে আছে রাজীব বিশ্বাসের ‘মাস্ক’, রাশেদ রাহার ‘নোলক’, উত্তম আকাশের ‘আমি নেতা হব’ এবং ‘চিটাগাইঙ্গা পোয়া নোয়াখাইল্যা মাইয়্যা’। এসব সিনেমায় শাকিবের নায়িকা বুবলী, মিম ও ববি। প্রযোজক ও পরিচালকদের মতে, শাকিব খান এখনো একমাত্র নায়ক, যাঁর সিনেমা দিয়ে অন্তত লগ্নি ফেরত পাওয়ার সম্ভাবনা আছে। দেড় দশক ধরে এ অবস্থাই চলছে।

অনেকে আবার মনে করছেন, এ বছর ঢাকার সিনেমা ব্যবসায়িকভাবে আরও সাফল্য পাবে। বছর শেষে এসে শাকিব ঘোষণা দেন, আবার সিনেমা প্রযোজনা করছেন তিনি। ‘প্রিয়তমা’ নামের এই সিনেমার কাজ কবে শুরু হবে, তা এখনো জানা যায়নি। তবে গত দুই বছরে শাকিব খান নিজেকে অনেক বদলেছেন। তার ছোঁয়া সিনেমায়ও পাওয়া যায়। নতুন বছর শাকিব নতুন কী ঘটাবেন, তা জানতে অপেক্ষা করতে হবে সিনেমাগুলোর মুক্তি পর্যন্ত।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *