185460

জরুরি নিরাপত্তায় জীবন বাঁচাবে ৯৯৯, উদ্বোধন মঙ্গলবার

জরুরি নিরাপত্তা বা দুর্ঘটনা পরিস্থিতিতে আইনশৃঙ্খলা বা সরবকারি অন্য বাহিনীর সেবা পাওয়া সহজ হচ্ছে। হাতের মোবাইল ফোনের একটি কলই বাঁচাবে জীবন। ৯৯৯ নম্বরে কল করলেও মিলবে পুলিশি বা ফায়ার সার্ভিসের সেবা। মিলবে হাসপাতালে যাওয়ার অ্যাম্বুলেন্সও।

জাতীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি দিবসে প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ আগামীকাল মঙ্গলবার জাতীয় জরুরি সেবার ৯৯৯ নম্বরটি উদ্বোধন করবেন । বেলা ১১টায় রাজধানীর আবদুল গণি রোডে পুলিশ নিয়ন্ত্রণ কক্ষে এই সেবার কার্যক্রম উদ্বোধন করা হবে। এরপর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে হবে আলোচনা সভা।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন। বিশেষ অতিথি থাকবেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) এ কে এম শহীদুল হক অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন।

৯৯৯ সেবাটি সম্পূর্ণ টোলমুক্ত অর্থ্যাৎ এ নম্বরে কল করলে কোন টাকা খরচ হবে না। তবে অ্যাম্বুলেন্স সেবা নিতে হলে টাকা খরচ করতে হবে।

পশ্চিমা দুনিয়ায় এই ধরনের উদ্যোগ নতুন নয়। গণমাধ্যম বিশেষ করে টেলিভিশন ও সিনেমার বদৌলতে এই বিষয়টি বাংলাদেশেও অজানা নয়। ব্রিটিশরা ন্যাশনাল হেল্পডেস্ক চালু করে ১৯৩৭ সালে, যুক্তরাষ্ট্রে তা চালু হয় ১৯৬৮ সালে।

বাংলাদেশে এক বছর আগে ২০১৬ সালের ১০ নভেম্বর পরীক্ষামূলকভাবে এই সেবাটি চালু করে সরকার। তখন ছয় মাস চালু ছিল এই সেবা। তখন সকাল সাতটা থেকে রাত ১০টা পর্যন্ত কল করা যেত। তবে এখন থেকে ২৪ ঘণ্টাই কল গ্রহণ করা হবে।

ছয় মাসের অভিজ্ঞতার আলোকে ভুল ত্রুটিগুলো শুধরে নিয়ে ও নতুন নতুন যেসব সংযোজন-বিয়োজন দরকার ছিল, তা করে এই সেবাটি পুরোদমে চালু করার কথা জানিয়েছে কর্তৃপক্ষ।

পুলিশ জানিয়েছে, ৯৯৯ সেবার প্রশিক্ষিত প্রতিনিধিরা জরুরি মুহূর্তে প্রয়োজন অনুযায়ী ফায়ার সার্ভিস, পুলিশ বা অ্যাম্বুলেন্স সেবা প্রদানকারীর সঙ্গে যোগাযোগ করিয়ে দেবেন। এ জন্য গত এক বছরে অপারেটরদেরকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে।

৯৯৯ নম্বরে ফোন করার পর সেখান থেকে বিপদগ্রস্তদেরকে আবারও কল করা হতে পারে বলে জানিয়েছেন সেবাটির সঙ্গে সম্পৃক্তরা। এ জন্য ফোনটি চালু রাখার তাগাদা দিয়েছেন তারা।

৯৯৯ এ করা সব কল রেকর্ড করা হবে জানিয়ে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জানিয়েছে কেউ মজা করতে বা হয়রানি করতে বা কাউকে ফাঁসাতে ফোন করলে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *