184482

অপুরই ইচ্ছা ছিলো না সংসার করার: শাকিব

বর্তমান সময়ে ঢালিউডের গরম খবর শাকিব-অপুর বিচ্ছেদ। গণমাধ্যম, সোস্যাল মিডিয়াসহ সর্বত্র এখন একটাই আলোচনা। কি করণে টিকলো না জনপ্রিয় এই তারকা জুটির সংসার?
বিষয়টি নিয়ে অবশেষে মুখ খুললেন শাকিব খান ও অপু বিশ্বাসের বন্ধু বাংলাদেশ চলচ্চিত্র ফোরামের সাংগঠনিক সম্পাদক ও প্রযোজক মোহাম্মদ ইকবাল।

তিনি জানান, যখন শাকিব ইন্ডিয়াতে যায় তখন আমি শাকিবকে ইয়ারপোর্টে নামিয়ে দেই। যাওয়ার পথে গাড়িতে শাকিব আমাকে একটা কথা বললো- ‘ইকবাল ভাই আর পারলাম না। বহু চেষ্টা করলাম। প্রথমে আমি কথাটা বুঝতে পারিনি। তখন আমি মনে করেছি মজা করার জন্য হয়তো কিছু বলতে চাচ্ছে।
আমি বললাম, কি পারলেন না? শাকিব তখন জানায়, অপুকে ছেড়ে দিলাম।

আমি তখন একটু অবাকই হলাম। বললাম, কেনো?
তখন শাকিব বলেন, ভাই আমার দেড় বছরের ছেলেটাকে রেখে, ঘড়ে তালা মেরে সে ইন্ডিয়া চলে যায়। অপুর বাসায় যেয়ে দিখি তালা মারা। এটা আমি কোনও ভাবেই মানে নিতে পারছি না। এটা বলার সঙ্গে সঙ্গে সে কেঁদে ফেললো।

আমি তখন তাকে বললাম, কোনভাবে কি মানিয়ে নেওয়া যায় না?
সে বললো, না। সম্ভব না। আপনাকে যদি কেউ প্রশ্ন করে তবে তাদের জানিয়ে দিয়েন।
মোহাম্মদ ইকবাল আরও বলেন, ‘গণমাধ্যমে যখন খবরটি প্রকাশ পায় অনেকেই আমাকে ফোন দেয় বিষয়টি জানার জন্য। এরপর আমি সোমবার দুপুর আড়াইটায় শাকিবকে ফোন দিলাম। শাকিব জানালো, সে যেদিন ইন্ডিয়ার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন সেই দিনই তালাকনামা পাঠিয়েছেন।

শুধুকি ছেলেকে রেখে ইন্ডিয়া যাওয়ার কারণেই বিচ্ছেদ চাইছেন শাকিব? এমন প্রশ্নের জবাবে ইকবাল বলেন, না। সে কিন্তু আমাকে বলেছে, আমি আট থেকে নয় মাস খুব চেষ্টা করলাম যে অপু আসবে, আমার সঙ্গে কথা বলবে, আমার পরিবারের সঙ্গে কথা বলবে। কিন্তু আসেনি। বরং আমার ভাই মনিরের কাছে ফোন দিয়ে শুধু টাকা চেয়েছে।
মোহাম্মদ ইকবাল বলেন, শাকিবের বক্তব্য- অপু যদি আমার সঙ্গে মিলতে চাইতো তবে সে আমার বাসাতেই আসতে পারতো। আসলে অপুরই ইচ্ছে ছিলো না যে সে আমার সঙ্গে সংসারটা করবে।

সূত্র: দৈনিক আমাদের সময়

ad

পাঠকের মতামত

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *